লগইন রেজিস্ট্রেশন

♦♦♦ ইসলাম কি দিয়েছে নারীকে (পর্ব- ১) ♦♦♦

লিখেছেন: ' আবদুস সবুর' @ রবিবার, মার্চ ৯, ২০১৪ (৭:০৩ অপরাহ্ণ)

►কন্যা সন্তানের জন্মকে বলা হল ‘সুসংবাদ’

وَإِذَا بُشِّرَ أَحَدُهُمْ بِالْأُنْثَى ظَلَّ وَجْهُهُ مُسْوَدًّا وَهُوَ كَظِيمٌ l يَتَوَارَى مِنَ الْقَوْمِ مِنْ سُوءِ مَا بُشِّرَ بِهِ أَيُمْسِكُهُ عَلَى هُونٍ أَمْ يَدُسُّهُ فِي التُّرَابِ أَلَا سَاءَ مَا يَحْكُمُونَ
তাদের কাউকে যখন কন্যা সন্তানের ‘সুসংবাদ’ দেয়া হয় তখন তার চেহারা মলিন হয়ে যায় এবং সে অসহনীয়
মনস্তাপে ক্লিষ্ট হয়। সে এ সুসংবাদকে খারাপ মনে করে নিজ সম্প্রদায় থেকে লুকিয়ে বেড়ায় (এবং চিন্তা করে ) হীনতা স্বীকার করে তাকে নিজের কাছে রেখে দেবে,নাকি মাটিতে পুঁতে ফেলবে। .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

তাসলিমা নাসরিনের মুক্তমনার প্যাকেজ

লিখেছেন: ' Selim Al Din' @ সোমবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৪ (৪:৫১ অপরাহ্ণ)

আপনাকে এই প্যাকেজ নিতে হলে যা যা করা লাগবে তা নিন্মরুপঃ

১) আপনাকে অবশ্যই এন্টি ইসলামিক হতে হবে।
২) তাসলিমার কাছে অশ্লিলতার ৩ মাসের কোর্স সম্পূর্ণ করতে হবে।
৩) নিজেকে কট্টর মুক্তমনা দাবি করতে হবে।
৪) যোনাঙ্গের স্বাধীনতা চাইতে হবে।
৫) পর্দা প্রথার বিরুদ্ধে অবস্থান করতে হবে।
৬) ধর্মের বিরুদ্ধে অশ্লিল বাক্যলাপের স্বাধীনতা চাইতে হবে।
.....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

হেজবুত তাওহীদ ভাইদের প্রশ্নের জবাবঃ ইহুদী-খ্রীষ্টান বস্তুবাদী সভ্যতায় কি দাজ্জাল?

লিখেছেন: ' Selim Al Din' @ রবিবার, নভেম্বর ১৬, ২০১৪ (২:৪৫ পূর্বাহ্ণ)

প্রথমে হেজবুত তাওহীদ ভাইদের করা কিছু প্রশ্ন দিয়ে শুরু করা যাক।

প্রথম পয়েন্টঃ ইবনে সাইয়্যাদ-ই কি দাজ্জাল।

দ্বিতীয় পয়েন্টঃ তামীম আদ দ্বারী (রাঃ) দাজ্জাল কে সচোক্ষে দেখেছিলেন বন্দী অবস্থায় কোন এক সমুদ্র দ্বীপে।

প্রশ্ন হল, দাজ্জাল যদি সমুদ্র দ্বীপে শেকল বন্দী অবস্থায় থাকে তাহলে রাসূল (সাঃ) কেন একজন বন্দী মানুষ কে মদীনায় খুঁজতে যাবেন?

তৃতীয় পয়েন্টঃ আদম (আঃ) থেকে শুরু করে কিয়ামত প্রর্যন্ত যত ঘটনা ঘটবে তার মধ্যে দাজ্জালের আগমন সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ।

তাহলে এতো গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার কুরআন কেন এড়িয়ে গেল?

চতুর্থ পয়েন্টঃ ইবনে সাইয়্যাদ ও .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

ফ্রি থিঙ্কার বানরের বংশধরেরা, তাদের ফ্রি থিঙ্কারের আড়ালের বাস্তবতা কি?

লিখেছেন: ' Selim Al Din' @ মঙ্গলবার, নভেম্বর ১১, ২০১৪ (১১:১১ পূর্বাহ্ণ)

১) “মুক্তমনা” শব্দটার অর্থ কি?
২) কারা নিজেদের “মুক্তমনা” দাবি করে?
৩) তারা কি সব ক্ষেত্রেই মুক্তমনা?
৪) “মুক্তমনা” দাবির পেছনের কারণ কি?
৫) সবাই কি “মুক্তমনা” হতে বাধ্য?

১) “মুক্তমনা” শব্দটা অনেকভাবে ব্যাখ্যা করা যায়। যা মানুষের চিন্তা-চেতনা, আচরণ, অভ্যাস নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। তবে এমন কিছু লোক আছে, যারা কিনা নিজেদেরকে বানরের বংশধর পরিচয় দিতেই বেশি সাচ্ছন্দ্য বোধ করে। তারা এই তথাকথিত মুক্তমনার একটা সংঙ্গা বের করেছে। আর এই “মুক্তমনা” সংঙ্গা তাদের বিকৃত চিন্তা, বিপদজ্জনক দাবি ও অসামাজিক কর্মকাণ্ড .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

ওরা আহলে হাদীস না মুনকিরীনে হাদীস?

লিখেছেন: ' মুসাফির' @ বুধবার, অগাষ্ট ২৭, ২০১৪ (১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ)

লেখক- মুনাজিরে ইসলাম মাওলানা মুহাম্মদ আমীন সফদর ওকাড়বী রহঃ

অনুবাদঃ লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

সমস্ত প্রশংসা আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের জন্য। যিনি দ্বীন বুঝার জন্য আমাদের ফুক্বাহাদের দিকে মনোনিবেশ করার আদেশ দিয়েছেন (সূরা তাওবা-১২২)।আর শয়তানের ধোকা থেকে বাঁচতে রাসূল সা. এর অনুসরণ করার সাথে উদ্ভাবনী ক্ষমতার অধিকারী মুজতাহিদদের অনুসরনের আদেশ দিয়েছেন,(সূরা নিসা-৮৩)।আর অগণিত সালাম ও দরূদ ঐ রাহমাতাল্লিল আলামীনের উপর, যিনি ফিক্বহকে কল্যাণ ফক্বীহদের কল্যাণী বলে ঘোষণা দিয়েছেন (বুখারী মুসলিম)।আর মুজতাহিদের সঠিকতার উপর দু’টি পূণ্য, আর ভুলের উপর একটি পূণ্যের ঘোষণা দিয়েছেন। আর বলেছেন .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

রমজান মাস এবং ঈদুল ফিতরঃ মানবতাবোধের এক মহান শিক্ষা

লিখেছেন: ' শাহ আলম বাদশা' @ রবিবার, জুলাই ২৭, ২০১৪ (১০:২১ অপরাহ্ণ)

ছেলেটি পথের ধারে অঝোরে কাঁদছে। পাশকেটে সবাই চলে যাচ্ছে যে যার কাজে। কেউকেউ নতুন জামা-কাপড় পরে আনন্দে হইচই করছে। অনেকে ঈদের মাঠে যাবার জন্য প্রস্তুতিও নিচ্ছে। কিন্তু ওর দিকে কারও নজর নেই। হঠাৎ নজর আটকে গেল একজনের। তিনি থমকে দাঁড়ালেন। মমতামাখানো কন্ঠে জিজ্ঞেস করলেনঃ কাঁদছো কেন, বাবা?
-আমার মা-বাবা নেই। আমার ঈদের জামা-কাপড় নেই, তাই–
-আর কেঁদোনা; তোমার মা-বাবা নেই তো কী হয়েছে, এসো আমার সঙ্গে। তোমারও নতুন পোশাক হবে-বলে তিনি ওকে সাথে নিয়ে তবে বাড়ি ফিরলেন।
বাড়িতে নিয়ে গিয়ে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

জামিয়াতুল আসাদের তারাবীহ সংক্রান্ত পোষ্টের পোস্টমর্টেম

লিখেছেন: ' ABU TASNEEM' @ রবিবার, জুলাই ২০, ২০১৪ (৬:৪৫ পূর্বাহ্ণ)

Tarabih-1

সমস্ত প্রশংসা ঐ মহান সত্তার জন্য যিনি আমাদের সৃষ্টি করেছেন এবং যার হাতে আমাদের প্রাণ। অসংখ্য দুরুদ ও সালাম বর্ষিত হোক সর্বশেষ ও চূড়ান্ত নাবী মুহাম্মাদ সা: এর উপর।

অতঃপর আমরা জানি যে, আয়াতুল কুরসীর ফজিলত বর্ণনাকারী হচ্ছে শয়তান। সেই শয়তান থেকে যদি আমরা ভালো কিছু পেতে পারি তবে মাযহাবীদের থেকে কেন পাব না। তবে শর্ত হচ্ছে, শয়তানের কথা যেমন যাচাই করা প্রয়োজন, ঠিক একইভাবে মাযহাবীদের কথাও যাচাই করা প্রয়োজন।

“তারাবীর সলাত বিশ রাকআত নাকি আট রাকআত” এ বিষয়টা নিয়ে আমি/আমরা খোজ .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

সুন্দর একটি ইসলামিক ওয়েব সাইট

লিখেছেন: ' দেশী৪৩২' @ বুধবার, জুলাই ২, ২০১৪ (২:০২ পূর্বাহ্ণ)

সুন্দর একটি ইসলামিক ওয়েব সাইট।
http://www.amarislam.com/

! রিপোর্ট করুন ! .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

হানাফী ফতোয়া : সূর্যাস্তের সাথে সাথে ইফতার শুরু না করা মাকরুহ

লিখেছেন: ' Talebul Elm' @ রবিবার, জুন ২৯, ২০১৪ (৬:৫৪ পূর্বাহ্ণ)

MFT Shafi

সালাফী বা আহলে হাদীসদের পক্ষ থেকে হানাফীদের প্রতি একটি অভিযোগ হল, তারা সূর্যাস্তের সাথে সাথে ইফতার করে না। অথচ হানাফী মুফতি শফী (রহ) লিখেছেন : (স্ক্রীন শট)

“ইফতারি : সূর্যাস্ত নিশ্চিত হওয়ার পর ইফতারিতে দেরী করাটা মাকরুহ। অবশ্য যখন মেঘ বা অন্যান্য কারণে সন্দেহ হয়, তখন দুই-চার মিনিটি অপেক্ষা করাটা ভাল। তবে সাবধানতার জন্য তিন মিনিট সবসময় অপেক্ষা করা উচিত।” [জাওয়াহিরুল ফিক্বহ ৩/৫২২ পৃ:]

অপর একজন হানাফী মুফতী মুহাম্মাদ কিফায়াতুল্লাহ দেহলভী (রহ) লিখেছেন :
غروب آفتاب کے بعد وقت افطار شروع .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

কুরআনে ইফতারের ওয়াক্ত বা সময়

লিখেছেন: ' Talebul Elm' @ শনিবার, জুন ২১, ২০১৪ (৩:২৬ অপরাহ্ণ)

[হাদীস অস্বীকারকারী ও শিয়া সম্প্রদায় যতগুলো ব্যাপারে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে তার মধ্যে ইফতারের ওয়াক্ত অন্যতম। নিচে এ সম্পর্কে আলোকপাত করা হলো। হাদীসে সূর্যাস্ত হওয়ার মুহূর্ত থেকেই রাতের আগমন ও ইফতারের শুরুর সময় ঘোষণা করা হয়েছে। যেহেতু তারা হাদীস থেকে দলিল নিতে চায় না, এ কারণে আমরাও হাদীস উপস্থাপন করা থেকে দূরে থাকছি। অথচ প্রমাণিত হবে, হাদীসের দাবীকেই কুরআনের আয়াত সমর্থন করছে। অবশ্য আলোচনার শেষে মাত্র একটি হাদীস উপস্থাপনার মাধ্যমে আয়াতগুলোর দাবীর সাথে কিভাবে হাদীস পরিপূরক হল, সেটা উপস্থাপন করেছি।]

আল্লাহ তা‌‌‘আলা .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

’মুসলিম’ বনাম ‘আহলে হাদীস’

লিখেছেন: ' Talebul Elm' @ সোমবার, জুন ১৬, ২০১৪ (১০:১৩ পূর্বাহ্ণ)

Bhrantir Berajale Ekamate Din

[পিস টিভির বক্তা ও বাংলাদেশ আহলেহাদীস যুব সংঘের সভাপতি মুযাফফর বিন মুহসিন লিখিত ‘ভ্রান্তির বেড়াজালে ইক্বামতে দ্বীন’ (প্রকাশক : আহলেহাদীছ যুবসংঘ, রাজশাহী, মার্চ’২০১৪) বইটিতে ‘মুসলিম’ নামে পরিচয় দেয়াকে ‘নতুন আবিষ্কার’, ‘মুসলিম তত্ত্ব’ প্রভৃতি হিসেবে চিহ্নিত করে অবজ্ঞা ও নিন্দা করা হয়েছে (পৃ: ২৩০-৩৪)। তিনি ‘মুসলিম’ শব্দটির ব্যবহারের প্রতি যে, মনোভাব ব্যক্ত করেছেন, তার প্রতিবাদেই আমাদের এই উপস্থাপনা। উল্লেখ্য আমাদের কাছে ‘আহলেহাদীস’ নামটি মুসলিমদের মধ্যে ‘সুন্নাতপন্থী আলেম ও গবেষকদের জন্য প্রযোজ্য’। এ কারণে এই পরিচয়টি নিয়ে এখানে কোন বিতর্ক করা হবে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>