লগইন রেজিস্ট্রেশন

ধারাবাহিক ফিকহ অধ্যয়ন – ১

লিখেছেন: ' Abu Ibrahim' @ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২২, ২০১০ (১২:৫২ অপরাহ্ণ)

إن الحمد لله، نحمده ونستعينه ونستغفره ونعوذ بالله من شرور أنفسنا وسيئات أعمالنا من يهد الله فلا مضل له ومن يضلل فلا هادي له وأشهد ألا إله إلا الله وحده لا شريك له وأشهد أن محمدا عبده ورسوله صلى الله عليه وعلى آله وصحبه ومن تبعهم بإحسان إلى يوم الدين أما بعد.

ধারাবাহিক ফিকহ অধ্যয়নে আপনাদেরকে স্বাগতম।

এই ধারাবাহিক আলোচনার উদ্দেশ্য:

১. ইসলামী শরীয়তের ব্যবহারিক বিধান যেমন: পবিত্রতা, সালাত, সাওম, যাকাত, হাজ্জ, বিবাহ, ব্যবসা ইত্যাদি সংক্রান্ত বিধান পদ্ধতিগতভাবে অধ্যয়ন করা।

২. এই বিধান বা আহকামগুলো দলীল সহ শিক্ষা করা।

৩. দ্বীনশিক্ষার আরবী উৎসের সাথে যোগসূত্র স্থাপন।

এই আলোচনার পদ্ধতি:

১. সাম্প্রতিক সময়ের শরীয়ত বিশেষজ্ঞগণের লেখনী/বক্তৃতা থেকে সংগ্রহ করে দলীলপ্রমাণ সহ মাসলা মাসায়েল আলোচনা করা হবে ইনশা আল্লাহ। আমরা এমন নির্ভরযোগ্য প্রখ্যাত আলেমগণের লেখনী/বই/বক্তৃতাকে বেছে নেব যারা কুরআন ও সুন্নাহ এর ভিত্তিতে গবেষণা করেছেন এবং বিভিন্ন মতের তুলনামূলক বিশ্লেষণ করে কুরআন ও সুন্নাহ এর আলোকে সঠিক মতকে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন।

২. আমরা প্রতিটি মাসআলার সাথে আলোচনার সূত্র উল্লেখ করব ইনশা আল্লাহ।

৩. কোন একজন আলেমের বই বা বক্তৃতাকে বেছে নেয়ার অর্থ এই নয় যে অন্যদের প্রতি কোন অশ্রদ্ধার মনোভাব আছে, বরং এক্ষেত্রে আমরা মুসলিম উম্মাহর উজ্জ্বল নক্ষত্র সকল আলেমগণের প্রতি শ্রদ্ধার মনোভাব পোষণ করি এবং তাদের জন্য সেই দুআ করি যা আল্লাহ পাক শিখিয়েছেন:

رَبَّنَا اغْفِرْ لَنَا وَلِإِخْوَانِنَا الَّذِينَ سَبَقُونَا بِالْإِيمَانِ وَلَا تَجْعَلْ فِي قُلُوبِنَا غِلًّا لِلَّذِينَ آمَنُوا رَبَّنَا إِنَّكَ رَءُوفٌ رَحِيمٌ

“হে আমাদের রব, আমাদেরকে ও আমাদের ভাই যারা ঈমান নিয়ে আমাদের পূর্বে অতিক্রান্ত হয়েছে তাদেরকে ক্ষমা করুন; এবং যারা ঈমান এনেছিল তাদের জন্য আমাদের অন্তরে কোন বিদ্বেষ রাখবেন না; হে আমাদের রব, নিশ্চয় আপনি দয়াবান, পরম দয়ালু৷” [সূরা আল হাশর, ৫৯ : ১০]

এই ধারাবাহিক আলোচনার উপকারিতা:

১. দলীলের জ্ঞানসহ আমল করার যোগ্যতা। ফলে একজন ব্যক্তি আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’লার সামনে দাড়িয়ে তার আমলগুলোর সপক্ষে কৈফিয়ত দিতে পারবে, যে সে কেন এই এই আমল করল।

২. আশা করা যায় যে এর দ্বারা একজন ব্যক্তি জ্ঞানের ভিত্তিতে আমলকারী আল্লাহওয়ালা লোকদের অন্তর্ভুক্ত হতে সক্ষম হবে।

৩. বিভিন্ন মাসআলায় মতভেদের উৎস ও এর সমাধান জানা সহজ হবে। ফলে তা পারস্পরিক মতভেদের ক্ষেত্রে সহনশীলতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে।

৪. উদ্ভূত বিভিন্ন নতুন পরিস্থিতে নিজে সিদ্ধান্ত নেয়ার যোগ্যতা তৈরী হবে বলে আশা করা যায়।

৫. আলেমগণের কাছে খুটিনাটি ফতোয়া জিজ্ঞেস করার প্রয়োজনীয়তা অনেকটা কমে আসবে। তবে অজানা বিষয় সবসময়ই থেকে যাবে, আর যখনই তা সামনে আসবে, তখনই জ্ঞানীদেরকে প্রশ্ন করা সকলের কর্তব্য।

৬. দলীলবিহীন মনগড়া ‘ইবাদত’ চিহ্নিত করা সম্ভব হবে।

সিরিজের শুরুতে আমাদের কর্তব্য:

১. আমরা এই জ্ঞানার্জনের দ্বারা শুধুমাত্র আল্লাহ পাকের সন্তুষ্টি অর্জন করতে চাই, তাই অন্তর থেকে অন্য সকল উদ্দেশ্যকে দূরীভূত করি । কারো সাথে তর্ক করতে পারা, কাউকে খাটো করা কিংবা জ্ঞানের বড়াই করা আমাদের উদ্দেশ্য নয়।

২. জ্ঞানার্জনের পর সেই জ্ঞানানুযায়ী আমল করা, যেন আমরা ইহুদীদের অনুরূপ না হই, যারা জ্ঞান থাকা সত্ত্বেও এর ওপর আমল না করে পথভ্রষ্ট হয়েছে।

৩. কোন মাসআলায় শরীয়তের বিধান নিশ্চিত হওয়ার পর অপরকে তা শিক্ষা দেয়া, যেন আমরা অন্যের আমলের সওয়াবও আমাদের একাউন্টে জমা করতে পারি।

কোন বিষয়ে মন্তব্য করতে চাইলে/মতভেদ হলে:

১. আমার পরামর্শ: সবসময় জ্ঞানের ভিত্তিতে, তাকওয়ার ভিত্তিতে, সূত্র উল্লেখ করে এবং আদবের সাথে মন্তব্য করি, বিশেষত: দ্বীনী বিষয়ে, কেননা দ্বীনের কোন বিষয়ে জ্ঞান ছাড়া কথা বলা আল্লাহ পাকের প্রতি মিথ্যারোপ করার মত।

২. আপনি কোন মাসআলায় দ্বিতীয় মত উল্লেখ করতে চাইলে উপযুক্ত রেফারেন্স দিয়ে তা করুন, তাহলে আরও গবেষণা করা সম্ভব হবে।

৩. কোন অবস্থাতেই ভাইয়ের প্রতি অন্তরে বিদ্বেষ পোষণ না করি। মানুষে মানুষে মতভেদ হবেই, আর ফিকহের মাসআলায় মতভেদ গুরুতর নয় যদি উপযুক্ত কারণ থাকে। অতএব মতভেদের ক্ষেত্রেও পরস্পরের জন্য অন্তরকে প্রশস্ত রাখি।

আল্লাহ পাক আমাদের প্রচেষ্টাকে কবুল করুন।

উল্লেখ্য যে এই অধ্যয়নে আমিও আপনাদের সহপাঠী।

وصلى الله وسلم على نبينا محمد وعلى آله وصحبه أجمعين

Processing your request, Please wait....
  • Print this article!
  • Digg
  • Sphinn
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Mixx
  • Google Bookmarks
  • LinkaGoGo
  • MSN Reporter
  • Twitter
১৫৬ বার পঠিত
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (ভোট, গড়: ৪.০০)

৪ টি মন্তব্য

  1. আসসালামু আলাইকুম।

    স্বাগতম।
    নিঃসন্দেহে ভালো একটি উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। আল্লাহ পাক আপনার এই মহৎ উদ্দেশ্যকে সফল করুন এই দোয়া করি।
    অচিরেই আশা করি আপনার প্রথম পোষ্ট পড়তে পারবো। (F)

  2. ধন্যবাদ সুন্দর জ্ঞানগর্ভ লেখা উপহার দেয়া ও আরো লেখার প্রতিশ্রুতি দেয়ার জন্য।আল্লাহ পাক আমাদের সবাইকে ইসলামের সঠিক জ্ঞান অর্জন করার তৌফিক দান করুন ।আমিন। (F)