লগইন রেজিস্ট্রেশন

লেখক আর্কাইভ

 

***সাবর বা ধৈর্য মুসলিমের অন্যতম হাতিয়ার***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ শনিবার, অক্টোবর ২, ২০১০ (১২:২৫ অপরাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম
আলহামদুলিল্লাহ, ওয়াস্সালাতু ওয়াস্সালামু আনা নাবিয়্যিনা মুহাম্মদ ﷺ।

‘সাবর’ বা ধৈর্য প্রত্যেক মুসলমানদের জন্যে অপরিহার্য। ‘সাবর’কে অনেকেই আমরা ‘সবুর’ বলেও ডেকে থাকি। কেউ বিপদে পড়লে, কোন কঠিন সমস্যায় পড়লে, কোন আকাঙ্খিত বস্তু না পেলে আমরা সাধারণত তাকে বলে থাকি, ‘সবুর কর, এত অধৈর্য হলে চলে’ কিংবা ‘সবুর কর সব ঠিক হয়ে যাবে’। আমাদের মাঝে একটা প্রবাদও প্রচলন আছে, ‘সবুরে মেওয়া ফলে’। ‘সাবর’ বা ‘সবুর’ এর সাথে তাওহীদের সম্পর্ক রয়েছে। হাফিজ ইবনে কায়্যিম রহিমাহুল্লাহ ইমাম আহমাদ রহিমাহুল্লাহ এর বরাতে বলেছেনঃ .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***আবু লাহাব এবং আমরা…***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ শুক্রবার, অক্টোবর ১, ২০১০ (১২:০৬ অপরাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম
আলহাদুলিল্লাহি রাব্বিল আলামিন, ওয়াস্সালাতু ওয়াস্সালামু আলা নাবিয়্যিনা মুহাম্মদ ﷺ।

আবু লাহাব – এই নামটি মুসলমান মাত্রই সবাই জানেন। রাসূল ﷺ এর মক্কী জীবনের অন্যতম প্রধান শত্রু। রাসূল ﷺ এর প্রতি আল্লাহ প্রদত্ত দায়িত্ব মানুষকে একদম পরিস্কার ভাবে ইসলাম বুঝিয়ে দেওয়া এবং ভয়াবহ আযাব থেকে সতর্ক করা। মক্কার জীবনে এই দায়িত্বগুলো পালন করতে যেয়ে রাসূল ﷺ কে যারা বাধা দিত, ইসলাম গ্রহণকারীদের অত্যাচার করতো তাদের মধ্যে আবু লাহাব অন্যতম। অত্যন্ত দুঃখজনক হলেও সত্য যে, আমরা ইসলামের এই প্রধান শত্রু .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***ইসলামী খিলাফা অমুসলিমদের যে সুবিধা দিয়েছিল আজকের যুগের তথাকথিত সেকুলার কোন রাষ্ট্র তার ধারের কাছেও নেই***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৩, ২০১০ (১০:০৮ অপরাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম
আলহামদুলিল্লাহির রহমানির রাহিম, ওয়াস্সালাতু ওয়াস্সালামু আলা নাবিয়্যিনা মুহাম্মাদ ﷺ।

বর্তমান যামানার অধিকাংশ মুসলমান ইসলামী খিলাফা কি রকম ছিল সে সম্পর্কে খুব কম ধারণাই রাখেন। ইসলামী খিলাফার শাসন ব্যবস্থায় অমুসলিমরা পর্যন্ত এতটাই সন্তুষ্ট ছিল যে রোমানরা যখন সিরিয়া’র হিমস এর নিকট সৈন্য সমাবেশ করতে থাকে তখন মুসলিমরা হিমস এর খ্রিস্টানদের নিকট থেকে যে ‘জিজিয়া’ নিয়েছিল তা সকল খ্রিস্টানদের নিকট ফিরিয়ে দেয়, মুসলিম সৈন্যরা তাদের বলেছিল, আমরা তোমাদের নিরাপত্তা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলাম কিন্তু যেহেতু আমরা নিরাপত্তার আশ্বাস দিতে পারছি না .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***উমর ইবনুল খাত্তাব (রা) এর জেরুজালেম সফর এবং আমাদের জন্যে শিক্ষা***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২, ২০১০ (৬:০৮ অপরাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম
আলহাদুলিল্লাহি রাব্বিল আলামিন, ওয়াস্সালাতু ওয়াস্সালমু আলা নাবিয়্যিনা মুহাম্মদ ﷺ।

উমর (রা) এর জেরুজালেম সফরের ঘটনা প্রায় মোটামুটি সবাই জানেন আর উমর (রা) সম্পর্কে এই ঘটনাটি অনেক বেশী আলোচিত। সংক্ষেপে ঘটনাটি এরকম, জেরুজালেম নগরী যখন মুসলিমদের দখলে আসে তখন সেখানকার খ্রিস্টান প্রধান “আমিরুল মুমিনীন” বা মুমিনদের নেতা উমর (রা) ব্যতীত অন্যের নিকট বায়তুল মাকদাস মসজিদের চাবি হস্তান্তর করতে অস্বীকার করেন। পরবর্তীতে উমর (রা) তার এক ভৃত্যকে সাথে নিয়ে জেরুজালেমের পথে রওনা দেন। তাদের যানবাহন হিসেবে ছিল একটি মাত্র উট। .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***রাসূল ﷺ এর সাহারী এবং ইফতার***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ শুক্রবার, অগাষ্ট ২০, ২০১০ (১১:২৯ পূর্বাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম
আলহামদুলিল্লাহ, ওয়াস্সালতু ওয়াস্সালামু আলা নাবিয়্যিনা মুহাম্মদ ﷺ।

রমাদান মাস আসলেই আমাদের দেশে খাদ্যের মেলা বসে যায়। ইফতারীর এত এত আয়োজন, বিকাল ৩টার পর থেকে রাস্তার পাশে খাদ্যের পসরা বসে যায়। পত্রিকাতে বিভিন্ন ইফতারের আইটেমের বিজ্ঞাপন, কিভাবে নানা মুখরোচক ইফতারী আইটেম তৈরী করা যায় তার তথ্য। বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের ইফতার পার্টির আয়োজন এবং সেই ইফতার পার্টির জৌলুসতা সারাদিন রোজা রাখার উদ্দেশ্যকে উপোস থাকার শামিল করে দেয়। রমাদান মাস ব্যতীত যেমন অন্যান্য দিনগুলোতে আমরা তিন বেলা খেয়ে অভ্যস্থ ঠিক তেমনি .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***আবু উবাইদা ইবনুল জাররাহ (রা) এর একটি ঘটনা এবং আমাদের জন্যে শিক্ষা***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ মঙ্গলবার, অগাষ্ট ১৭, ২০১০ (১২:০৯ অপরাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম
আলহাদুলিল্লাহি রাব্বিল আলামিন, ওয়াস্সালাতু ওয়াস্সালমু আলা নাবিয়্যিনা মুহাম্মদ ﷺ।
আবু উবাইদা (রা) সম্পর্কে রাসূল ﷺ বলেছিলেন, ‘লিকুল্লি উম্মাতিন আমীনুন, ওয়া আমীনু হাজিহিল উম্মাহ আবু উবাইদা’ অর্থাৎ ‘প্রত্যেক জাতিরই একজন বিশ্বস্ত ব্যক্তি আছে। আর এ মুসলিম জাতির পরম বিশ্বাসী ব্যক্তি আবু উবাইদা’।

আবু উবাইদা (রা) সেই দশজন সাহাবীদের অন্তর্ভূক্ত যারা দুনিয়ায় থাকতেই জান্নাতের সুসংবাদ পেয়েছিলেন। আর এক্ষেত্রে একটি বিষয় উল্লেখযোগ্য যেসব সাহাবীদের দুনিয়ায় জীবিত থাকতেই জান্নাতের সংবাদ প্রাপ্ত তাদের জীবনীর দিকে তাকালে দেখতে পাই তারা আল্লাহ ও আল্লাহর রাসূল .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***আব্দুল্লাহ বিন হুজাফা (রা) এর একটি ঘটনা এবং আমাদের জন্যে শিক্ষা***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ শনিবার, অগাষ্ট ৭, ২০১০ (৬:৩৯ অপরাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম
আলহাদুলিল্লাহি রাব্বিল আলামিন, ওয়াস্সালাতু ওয়াস্সালমু আলা নাবিয়্যিনা মুহাম্মদ ﷺ।

ঘটনাটি উমর ইবনুল খাত্তাব (রা) এর খিলাফতের সময়ে সংঘঠিত হয়েছিল। রোমান সম্রাজ্যের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে যেয়ে একদল মুসলিম রোমানদের নিকট বন্দী হয়। রোমান সম্রাট জানতে পারলেন এই বন্দীদের মাঝে একজন নবী ﷺ এর সাহাবী রয়েছে। রোমান সম্রাট সাহাবীদের সম্পর্কে অনেক ভালোগুণের কথা শুনতে পেয়েছিলেন। তার খুব ইচ্ছা ছিল একজন সাহাবীর সাথে সাক্ষাৎ করার। তাই তিনি বন্দী সাহাবীর সাথে কথা বলতে চাইলেন। রোমান সম্রাট চিন্তা করলেন সাহাবীরা যেহেতু অনেক মহৎ .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***মুসলিম সমাজে শিয়া বিভ্রান্তিঃ শিয়া, একটি ইসলাম বহির্ভূত, পথভ্রষ্ট দল***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ মঙ্গলবার, জুলাই ১৩, ২০১০ (১২:২৫ অপরাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম
আলহামদুলিল্লাহ, ওয়াস্সালাতু ওয়াস্সালামু আনা নাবিয়্যিনা মুহাম্মদ সাল্লাল্লহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।

ইসলাম একত্ববাদের উপর প্রতিষ্ঠিত, এই একত্ববাদের প্রচারের দায়িত্ব দিয়ে আল্লাহ পৃথিবীতে নবী-রাসূল প্রেরণ করেছেন। ইসলাম প্রতিষ্ঠিত এবং পূর্ণাঙ্গ। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইসলামের ব্যাখ্যাকারী। তিনি অতুলনীয়ভাবে আমাদের আল্লাহর একত্ববাদ বুঝিয়ে দিয়েছেন। আরব মুশরিকরা আল্লাহকে চিনতো কিন্তু তারা আল্লাহর একক কর্তৃত্ব মেনে নেয়নি। ইহুদীগণ অভিশপ্ত এবং খ্রিস্টানগণ পথভ্রষ্ট। মূর্তিপূজারীরা বহুত্ববাদের বিশ্বাসী। এরা কেউই আল্লাহর একত্ববাদের স্বীকৃতি দেয় নি। আল্লাহর কর্তৃত্ব, আল্লাহর বড়ত্ব, আল্লাহর ক্ষমতা, আল্লাহর গুণাবলী শুধু আল্লাহর .....

১৭ টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***বিশ্বাস এবং সৎকর্মঃ তৃতীয় পর্ব***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ রবিবার, জুন ২৭, ২০১০ (১১:৫২ পূর্বাহ্ণ)

পূর্বে প্রকাশিতের পর…
***বিশ্বাস এবং সৎকর্মঃ প্রথম পর্ব***
***বিশ্বাস এবং সৎকর্মঃ দ্বিতীয় পর্ব***

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম

সঠিক উপায়ে সৎকর্ম ব্যতীত বিশ্বাস

এরপর যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব সেটি হল, সঠিক উপায়ে সৎকর্ম ব্যাতীত বিশ্বাস। আপনারা অনেক মানুষকে পাবেন যাদের আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস অনেক মজবুত। কিন্তু বিশ্বাস মজবুত থাকলেও তারা সৎকর্মটি সঠিক পন্থায় করে না। তারা ঐ সকল বিষয়ের অনুসরণ করে যেগুলো এক প্রজন্ম থেকে অন্য প্রজন্ম পর্যন্ত যা পৌছেছে অর্থাৎ যেগুলো তারা তাদের বাপ-দাদাদের মাধ্যমে পেয়েছে। এই ইসলামকে আমরা .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***বিশ্বাস এবং সৎকর্মঃ দ্বিতীয় পর্ব***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ শনিবার, জুন ১৯, ২০১০ (৯:১৬ পূর্বাহ্ণ)

পূর্বে প্রকাশিতের পর….
বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম

সৎকর্ম ব্যতীত বিশ্বাস

এরপর আমরা যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবো তাহলো সৎকর্ম ব্যাতীত বিশ্বাস। আপনারা অনেক লোকদের দেখে থাকবেন যারা নামাজ পড়ে না কিন্তু তারা আপনাকে বলবে, আমার বিশ্বাস আমার অন্তরের মধ্যে রয়েছে। আমার বিশ্বাসকে দেখানোর জন্য আমার কোন সাইনবোর্ডের দরকার নেই যেমনটি তোমরা নামাজ, রোজা করার মাধ্যমে সাইনবোর্ড ধারণ করে তোমাদের বিশ্বাসগুলোকে প্রদর্শন করছ। আমার বিশ্বাস আমার অন্তরের মধ্যে রয়েছে, আমি এটার প্রতি আন্তরিকও আর আমি এটা প্রদর্শন করে দেখাতে চাই না। তবে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>