লগইন রেজিস্ট্রেশন

লেখক আর্কাইভ

 

***ঈদে মিলাদুন্নবীঃ একটি পর্যালোচনা***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ রবিবার, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১০ (৩:০৭ অপরাহ্ণ)

ﺑﺴﻢ اﷲ اﻟﺮ ﲪﻦ اﻟﺮ ﺣﻴﻢ

সকল প্রশংসা আল্লাহ তাআলার। আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আল্লাহ ছাড়া আর কেউই ইবাদত পাওয়ার যোগ্য নয় এবং মুহাম্মদ ﷺ আল্লাহর রাসূল। আল্লাহর তাআলার শান্তি এবং রহমত রাসূল এবং তার পরিবার, তার সাহাবীদের এবং কিয়ামত পর্যন্ত তাদের যারা অনুসরণ করবে তাদের উপর অর্পিত হোক।

আজ ২৩ সফর ১৪৩১ হিজরী। এর ঠিক পরের মাসটিই হচ্ছে রবি-ওল-আওয়াল মাস। রবি-ওল-আওয়াল মাসের ১২ তারিখকে আমাদের দেশে তথা উপমহাদেশে ঈদে মিলাদুন্নবী হিসেবে উদযাপন করা হয়। এই উদযাপনকে ঘিরে অনেক অনুষ্ঠান, আলোচনা, সভা-সেমিনার, .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***মৃত হৃদয়***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১০ (১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ)

মৃত হৃদয়
ইমাম ইবনুল ক্যায়্যিম

যখন সারাবিশ্বে হাজার হাজার মুসলিমকে মেরে ফেলা হচ্ছে, মানুষকে আল্লাহর দিকে ডাকতে যেয়ে, ভাল কাজের আদেশ এবং অসৎ কাজের নিষেধ করতে যেয়ে হাজার হাজার মুসলিমকে কারাবরণ, নির্মম শাস্তি ভোগ করতে হচ্ছে তখন অধিকাংশ মুসলিম আশ্চর্যজনক ভাবে নিরবতা পালন করে যাচ্ছে। তাদের এই বিষয়টা নিয়ে কোন চিন্তাই নেই বরং তাদের চিন্তা শুধু বস্তুবাদী দুনিয়ার প্রয়োজন নিয়ে। তাদের অন্তর দুনিয়ার জীবনের ভালভাসায় এতটাই মেতে আছে যে পরকালের কথা তারা ভুলে গেছে।

আল্লাহ তাআলা বলেন, “তাদেরকেই বরং তুমি দেখতে পাবে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***যে দশটি কাজ একজনকে ইসলাম থেকে বের করে দেয়***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১, ২০১০ (১:০৭ পূর্বাহ্ণ)

“যে দশটি কাজ একজনকে ইসলাম থেকে বের করে দেয়”
শায়খ মুহাম্মাদ

প্রথম, আল্লাহর সাথে কাউকে শরীক করে ইবাদত করলে। আল্লাহ তাআলা বলেন,
“আল্লাহ তাআলা (এ বিষয়টি) ক্ষমা করবেন না যে, তাঁর সাথে (কোন রকম) শরীক করা হবে, এ ছাড়া অন্য সকল গুনাহ তিনি যাকে ইচ্ছা করেন তাকে ক্ষমা করে দিতে পারেন” (সূরা নিসাঃ ১১৬)
আল্লাহ তাআলা আরো বলেন,
“মূলত যে কেউই আল্লাহর সাথে শরীক করবে, আল্লাহ তাআলা তার উপর জান্নাত হারাম করে দিবেন, আর তার (স্থায়ী) ঠিকানা হবে জাহান্নাম; এ জালেমদের .....

১০ টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***বিশ্বাস এবং সৎকর্ম***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ শনিবার, জানুয়ারি ৩০, ২০১০ (১২:২১ পূর্বাহ্ণ)

ড. আবু আমেনা বিলাল ফিলিপ

সকল প্রশংসা আল্লাহ তাআলার জন্য এবং আল্লাহ তাআলার শান্তি ও রহমত শেষ নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং যারা মৃত্যর পূর্ব পর্যন্ত সঠিক পথে অবিচল থাকে তাদের উপর অর্পিত হোক। আজকের আলোচনার বিষয়টি হচ্ছে, “ইসলামের মৌলিক বিশ্বাস”। সাধারণত ইসলামের মৌলিক বিশ্বাস নিয়ে আলোচনা করতে গেলেই আমরা ইসলাম যে পাঁচটি ভিত্তি বা খুঁটির উপর প্রতিষ্ঠিত সেগুলো নিয়ে আলোচনা করি যেমন: সত্যের সাক্ষ্য দেওয়া, সালাত(নামাজ), যাকাত, সাওম(রোজা) এবং হজ্জ্ব। আমি এই বিষয়গুলো নিয়ে আজকে আলোচনা করব না .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***দশটি অপ্রয়োজনীয় বিষয়***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৬, ২০১০ (১:৫৮ পূর্বাহ্ণ)

দশটি অপ্রয়োজনীয় বিষয়
ইমাম ইবনুল কায়্যিম

১. এমন ইলম বা জ্ঞান যা কর্মে সম্পাদন(আমল) করা হয়নি।
২. এমন কাজ যা না আন্তরিকতার সাথে করা হয়েছে আর না অন্যদের ভাল কাজের অনুসরণ করে করা হয়েছে।
৩. টাকা সঞ্চয় করা হয়েছে কিন্তু যা থেকে মালিক বেঁচে থাকা অবস্থায় না উপভোগ করতে পারে আর না এই টাকা পরকালে তার জন্যে কোন পুরস্কার বয়ে আনে।
৪. এমন হৃদয় যেখানে আল্লাহর জন্য ভালভাসা ও আন্তরিকতা অনুপস্থিত এবং কিভাবে আরো আল্লাহর নিকটবর্তী হওয়া যায় তার অনুসন্ধান করে না।
৫. এমন .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***আমেরিকান ধর্ম যাজক ইউসুফ এসতেসের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার কাহিনী…….***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ রবিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০১০ (১০:৪৮ পূর্বাহ্ণ)

কিছুদিন আগে ইউসুফ এসতেস এর বক্তৃতার ভিডিও দেখলাম, সেখানে তিনি তার মুসলিম হওয়ার কাহিনী বলেছিলেন। আমি জানতাম তিনি একজন প্রিচার(ধর্ম যাজক) ছিলেন আর পরে একজন মুসলিম হয়েছেন কিন্তু কিভাবে হয়েছিলেন তা জানতাম না। মূল ভিডিওটি ছিল ইংলিশে, আমার কাছে তার ইসলাম গ্রহণের ঘটনাটি খুবই ভাল লেগেছিল তাই আমি মনে করলাম যদি এটা বঙ্গানুবাদ করে অন্যদেরকে জানাই হয়তো অন্যদেরও ভাল লাগবে আর ভাল জিনিস সেয়ার করার মজাই আলাদা। আমি বঙ্গানুবাদের ক্ষেত্রে খুব একটা দক্ষ না, যেহেতু মূল ভিডিওটি বক্তৃতা আকারে ছিল, .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***একজন মুসলিমের যে বিষয়গুলো জানা গুরুত্বপূর্ণ***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ শুক্রবার, জানুয়ারি ২২, ২০১০ (১২:৪৬ অপরাহ্ণ)

ﺒﺴﻢ ﺍﷲ ﺍﻠﺮ ﺤﻣﻦ ﺍﻠﺮ ﺤﻴﻢ

একজন মুসলমানের অবশ্য কর্তব্য হচ্ছে অন্যদেরকে(নামধারী মুসলিম, অমুসলিম তথা অন্য ধর্মের অনুসারীদের) ইসলামের দিকে আহবান করা এবং এই আহবান করতে যেয়ে একজন মুসলিমকে সে যে বিষয়ে অন্যদের আহবান করবে সেই বিষয়ে অবশ্যই পরিস্কার ধারণা থাকতে হবে যার ফলশ্রুতিতে দাওয়াত দিতে গিয়ে সে ভুল করবে না।
আল্লাহ তাআলা বলেন,
“(হে মুহাম্মদ) আপনি বলে দিন, এটাই আমার পথ; আমি মানুষদের আল্লাহর দিকে আহবান করি(অর্থাৎ আল্লাহর একত্ববাদের দিকে), আমি ও আমার অনুসারীরা পূর্ণাঙ্গ জ্ঞানের সাথেই (এ পথে) .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***মুসলিমদের ব্যাপারে হাদীস সমূহ***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২১, ২০১০ (৫:০৬ পূর্বাহ্ণ)

মুসলিমদের ব্যাপারে হাদীস সমূহ
শায়খ মুহাম্মদ বিন জামীল যাইনু

১। মুসলিম হচ্ছে ঐ ব্যক্তি যার কথা ও হাত হতে অন্য মুসলিমগণ চিন্তামুক্ত। (বুখারী ও মুসলিম)
২। মুসলিমদের গালি দেওয়া ফাসেকী কাজ, আর তাকে হত্যা করা কুফরির সমতুল্য। (বুখারী)
৩। উরুকে ঢেকে রাখ। কারণ, পুরুষের উরু তার আওরতের (অবশ্যই ঢেকে রাখা জরুরী) অন্তর্ভূক্ত।(সহীহ, আহমদ)
৪। মুমিন কক্ষণও অতিরিক্ত দোষ ধরা বা লা’নত দেয়া বা ফাহেশা কাজ কিংবা কটুভাষী হতে পারে না। (মুসলিম)
৫। যে আমাদের(মুসলিমদের) বিরুদ্ধে অস্ত্র ধারণ করবে সে আমাদের কেউ .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***কতগুলো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যেগুলো নামাজ পড়া অবস্থায় অবহেলা করা হয়***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ সোমবার, জানুয়ারি ১৮, ২০১০ (১:৩৫ অপরাহ্ণ)

একজন মুসলমানের উপর নামাজ পড়া অবশ্য কর্তব্য। নামাজ পড়তে যেয়ে আমরা না জানার কারণে কিংবা জেনেও না মানার কারণে কতগুলো বিষয় অবহেলা করি আর যার কারণে আমাদের নামাজগুলো যথার্থরুপে সম্পাদন করা হয় না। এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো হচ্ছেঃ

*নামাজে একাগ্রতা ও নিষ্ঠা পরিত্যাগ করা
*নামাজে অনর্থক নড়াচড়া করা
*ইচ্ছাকৃত ভাবে নামাজে ইমামের পূর্বে আগে বেড়ে কাজ করা

বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানা একজন মুসলিমের জন্য অতীব প্রয়োজনীয়। তাই বিষয়গুলো সম্পর্কে নীচে আলোচনা করা হল।

নামাজে একাগ্রতা ও নিষ্ঠা পরিত্যাগ করা
সবচেয়ে বড় চুরি হলো .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

***একটি ভুল ধারণার অপনোদন***

লিখেছেন: ' manwithamission' @ সোমবার, জানুয়ারি ৪, ২০১০ (১:৩৯ পূর্বাহ্ণ)

আমাদের অনেকের মাঝেই একটা ভুল ধারণা প্রচলিত হয়ে আছে। ভুল ধারণাটির উদ্ভব হয়েছে আয়াতটির প্রকৃত অর্থ না বুঝার কারণে। আয়াতটির ভুল অর্থ করা হয় এইভাবে, “তোমাদের জন্য তোমাদের ধর্ম, আমাদের জন্য আমাদের ধর্ম”। কিন্তু বাস্তবে আয়তটির অর্থ মোটেও এটা বুঝায় না। আসলেই কি বুঝায় সেই বিষয়টিই আলোকপাত করব। ইনশাল্লাহ আমাদের ভুল ধারণাটি দূর হয়ে যাবে।

এই আয়াতটি হচ্ছে কুরআন শরীফের ১০৯ নং সূরা কাফিরুনের ৬ নং আয়াত
যার প্রকৃত অর্থ হচ্ছেঃ “তোমাদের কর্ম ও কর্মফল তোমাদের জন্যে এবং আমার কর্ম ও .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>