লগইন রেজিস্ট্রেশন

“লাল বাতি জ্বলাকালীর নুতন করে সুন্নতের নিয়্যত করবেন না” এই নিষেধ কার পক্ষ থেকে ?

লিখেছেন: ' বাগেরহাট' @ রবিবার, এপ্রিল ১১, ২০১০ (১:০১ পূর্বাহ্ণ)

” বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম”

বাংলাদেশের শতকরা ৯৮ভাগ মাসজিদেই খুব সুন্দর করে লেখা থাকে “লাল বাতি জ্বলাকালীন নুতন করে সুন্নতের নিয়্যত করবেন না ।
যতটুকু খেয়াল করেছি কথাটির মূল উদ্দেশ্য হল জুমু’আর খুতবা চলাকালীন
সুন্নত । কিন্তু কথাটি শরীয়াতের দৃষ্টিতে কতটুকু সঠিক ?

মূল প্রসঙ্গে যাওয়ার আগে আযান সম্পর্কে দুটি হাদিস পাঠ করি-
…. নাবী করিম (সঃ) ,আবু বকর (রাঃ) এবং উমর (রাঃ) এর সময়
জুমু’আর দিন ইমাম যখন মিম্বরের উপর বসতেন, তখন প্রথম আযান দেওয়া হত। পরে যখন উসমান (রাঃ) খলীফা হলেন এবং লোকসংখ্যা বৃদ্ধি পেল , তখন তিনি ‘যাওরা’ থেকে তৃতীয় আযান বৃদ্ধি করেন । ইমাম বুখারী (রঃ) বলেন, ‘যাওরা’ হল মদীনার অদূরে বাজারের একটি স্থান ।
বুখারী (ইসলামিক ফাঃ) ১৮১পৃঃ ৮৬৬নং হাঃ ।

অনুচ্ছেদঃ জুমু’আর দিন এক মুআযযিনের আযান দেওয়া ।
……মদীনার অধীবাসীদের সংখ্যা যখন বৃদ্ধি পেল, তখন জুমু’আর দিন তৃতীয় আযান যিনি বৃদ্ধি করলেন, তিনি হলেন, উসমান ইবন আফ্ফান (রাঃ) । নাবী করিম (সঃ) এর সময় (জুমুআর জন্য ) একজন ব্যাতীত মুআযযিন ছিল না এবং জুমু’আর দির আযান দেওয়া হত যখন ইমাম বসতেন অর্থাৎ মিম্বরের উপর খুতবার পূর্বে ।
বুখারী (ইঃ ফাঃ) পৃঃ ১৮২ , ৮৬৭ নং হাঃ ।

এখন প্রশ্ন হল, উসমানীয় আযানের উসমানীয় শর্ত হওয়া বান্ঞ্চনীয় নয় কী ? যে মদীনায় এ আযান শুরু হয়েছিল সে আযান কী এখনও সেখানে চালু আছে? না থাকলে যে আযান রসুল (সঃ) এর সুন্নাতকে ঠিক রেখে
‘যাওরা’ নামক বাজারে চালু হয়েছিল , তা কিভাবে আমাদের এ উপমহাদেশে মাসজিদের বারান্দায় ১ম আযান এবং ইমাম সাহেবের সামনে দাড়িয়ে ২য় আযানে রুপ নিল ? যদি কারো জানা থাকে দয়া করে জানাবেন ।

যাই হোক, আমাদের এই উপমহাদেশে এই ১ম ও ২য় আযানের মধ্যবর্তী
সময়ে বাংলায় যে বয়ানটা হয় (যা রসুল (সঃ) এর সময় চালু ছিল বলে
কোন প্রমান আমার জানামতে নেই ) সে সময় জ্বলে ওঠে এই লাল বাতি ।
যা জ্বলাকালীন কোন সুন্নাত আদায় না করার জন্য নির্দেশ দেয় ।

কিন্তু আল্লাহর রসুল (সঃ) খুতবা দিচ্ছিলেন এরকম সময়ের একটি সহীহ
হাদিসের প্রতি একটু লক্ষ্য করুন -

অনুচ্ছেদঃ ইমাম খুতবা দেওয়ার সময় যিনি মাসজিদে আসবেন তার
সংক্ষেপে দু’রাকা’আত সলাত আদায় করা ।
আলি ইবন আব্দুল্লাহ (রঃ)…জাবির ইবন আব্দুল্লাহ (রাঃ) থেকে বর্ণিত ,
তিনি বলেন, এক জুমু’আর দিন নাবী (সঃ) খুতবা দেওয়ার সময় এক ব্যক্তি প্রবেশ করল । তিনি তাকে জিজ্ঞাসা করলেন, সলাত আদায় করেছ
কী ?সে বলল, না, তিনি বললেনঃ উঠ , দু’রাকা’আত সলাত আদায় করে নাও।
বুখারী (ইঃ ফাঃ) ১৯১ পৃঃ ৮৮৪ নং হাদিস ।

আল্লাহর রসুল (সঃ) যে সলাতের অনুমতি দিলেন সে সলাতের উপর
নাবোধক নোটিশ ঝুলানো হল কখন এবং কিসের ভিত্তিতে কারও জানা থাকলে দয়া করে জানাবেন কী ?

আল্লাহ আমাদের সকলকে সত্যের উপর প্রতিষ্ঠিত রাখুন। আমীন ।

Processing your request, Please wait....
  • Print this article!
  • Digg
  • Sphinn
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Mixx
  • Google Bookmarks
  • LinkaGoGo
  • MSN Reporter
  • Twitter
৫১ বার পঠিত
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (ভোট, গড়: ৫.০০)