লগইন রেজিস্ট্রেশন

‘নাস্তিকতার যুক্তিখন্ডন’ ক্যাটাগরি -এর আর্কাইভ

 

পরকাল যে সত্যিই হবে তার যুক্তি

লিখেছেন: ' mamunipc' @ মঙ্গলবার, এপ্রিল ১১, ২০১৭ (৮:৩৯ অপরাহ্ণ)

بَلْ تُؤْثِرُونَ الْحَيَاةَ الدُّنْيَا ﴿١٦﴾ وَالْآخِرَةُ خَيْرٌ وَأَبْقَىٰ
বস্তুতঃ তোমরা পার্থিব জীবনকে অগ্রাধিকার দাও, অথচ পরকালের জীবন উৎকৃষ্ট ও স্থায়ী (সূরা আ‘লা: ১৬-১৭)

১নং যুক্তি-
মানুষ সাধারণত দুটো কারণে মিথ্যা বলে। যথাঃ
১। মানুষ কোন না কোন লোভ বা স্বার্থের বশীভূত হয়ে-অথবা
২। কোন না কোন ভয়ের কারণে।
এ দুটো জিনিস যখন কারও সামনে থাকে না তখন সে সত্য কথাই বলে এটাই মানব প্রবৃত্তি। আমরা দেখি দুনিয়ার নবী রাসূল (সা.) সবাই বলেছেন পরকাল হবে এবং তাঁরা প্রত্যেকেই এমন ছিলেন যে, কোন .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

আস্তিক-নাস্তিকের যুক্তিতর্ক

লিখেছেন: ' আঁধারের আলো' @ শনিবার, মার্চ ৪, ২০১৭ (২:২৯ অপরাহ্ণ)

بسم الله الرحمن الرحيم
قَالُوا سُبْحَانَكَ لَا عِلْمَ لَنَا إِلَّا مَا عَلَّمْتَنَا إِنَّكَ أَنْتَ الْعَلِيمُ الْحَكِيمُ (32(
অর্থঃ তারা বলল,আপনি মহান পবিত্র,আপনি আমাদের যা শিক্ষা দিয়েছেন তাছাড়া আমাদের তো কোন জ্ঞানই নেই,নিশ্চয়ই আপনি মহাজ্ঞানী,অতিশয় প্রজ্ঞাময়।” (বাকারা:৩১-৩২)

আল্লাহ্‌ই সকল প্রশংসার প্রকৃত হকদার, অসংখ্য দরূদ ও সালাম বর্ষিত হোক তাঁর নবীর উপর বারবার।
আস্তিক ও নাস্তিকের মাঝে যুক্তিতর্কের প্রথম পর্যায়ে আস্তিক সাধারণতঃ এভাবে বলা শুরু করে যে, কোন কিছু শূন্য থেকে নিজে নিজে অস্তিত্ব লাভ করতে পারেনা।কোন ঘটনা বিনা কারণে হয় না। প্রত্যেক .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

ভেবে দেখবে কি বোন ???

লিখেছেন: ' Hedayet Ullah' @ সোমবার, এপ্রিল ২৭, ২০১৫ (৯:৪৫ অপরাহ্ণ)

আমি তোমাকে মা আর বোনের মর্যাদা দিতে চাই বলে আমাকে “গেঁয়ো ভূত বলে গালি দিলে কিন্তু তারা তোমাকে অবাধ স্বাধীনতার নামে কি দিল? পৃথিবীর সামনে তোমার লুণ্ঠিত ইজ্জত!
মর্দে মুজাহিদ শেরে খোদা আল্লামা জিয়াউর রহমান ফারূকী নাওয়ারাল্লাহু মারকাদাহু বলেছেন “আয় আওরাত! তোমহারা ইজ্জত কিসনে ছিনা? জিসনে তোমহারা দোপাট্টা ছিনা” তথা হে নারী জাতি! তোমার সম্মান কে ছিনিয়েছে? যে তোমার উড়নাটি [আধুনিকার স্লোগান দিয়ে] খুলে নিয়েছে।
কিন্তু একথা বুঝার মত বিবেক বুদ্ধি আমাদের নারী জাতির কি আছে? হবেও কি কোনদিন?
আমি .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

♦♦♦ ইসলাম কি দিয়েছে নারীকে (পর্ব- ১) ♦♦♦

লিখেছেন: ' আবদুস সবুর' @ রবিবার, মার্চ ৯, ২০১৪ (৭:০৩ অপরাহ্ণ)

►কন্যা সন্তানের জন্মকে বলা হল ‘সুসংবাদ’

وَإِذَا بُشِّرَ أَحَدُهُمْ بِالْأُنْثَى ظَلَّ وَجْهُهُ مُسْوَدًّا وَهُوَ كَظِيمٌ l يَتَوَارَى مِنَ الْقَوْمِ مِنْ سُوءِ مَا بُشِّرَ بِهِ أَيُمْسِكُهُ عَلَى هُونٍ أَمْ يَدُسُّهُ فِي التُّرَابِ أَلَا سَاءَ مَا يَحْكُمُونَ
তাদের কাউকে যখন কন্যা সন্তানের ‘সুসংবাদ’ দেয়া হয় তখন তার চেহারা মলিন হয়ে যায় এবং সে অসহনীয়
মনস্তাপে ক্লিষ্ট হয়। সে এ সুসংবাদকে খারাপ মনে করে নিজ সম্প্রদায় থেকে লুকিয়ে বেড়ায় (এবং চিন্তা করে ) হীনতা স্বীকার করে তাকে নিজের কাছে রেখে দেবে,নাকি মাটিতে পুঁতে ফেলবে। .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

প্রতারণা হ’তে সাবধান থাকুন!

লিখেছেন: ' ABU TASNEEM' @ সোমবার, জুন ৪, ২০১২ (৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ)

BOKTA


লেখাটি এখানে থেকে সংগৃহীত । চাইলে মূল লিংক থেকে লেখাটি পড়তে পারেন
(১) সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে নামধারী কিছু রাজনৈতিক ধর্মনেতা তাদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য আহলেহাদীছ আন্দোলনের বিরুদ্ধে অবিরতভাবে মিথ্যাচার করে চলেছেন। তারা হানাফীদেরকে আহলেহাদীছের বিরুদ্ধে ক্ষেপিয়ে দেবার অপকৌশল নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন মিডিয়ার মাধ্যমে অপপ্রচার চালাচ্ছেন এবং লিফলেট ছেড়ে ও বই লিখে অপপ্রচার করছেন। তাদের সকলের ভাষা প্রায় একইরূপ। যেমন,

‘ভারতবর্ষে মুসলমানদের দ্বারা বৃটিশ তাড়াও আন্দোলনের অগ্রনায়ক সৈয়দ আহমদ (রহঃ) বালাকোটের যুদ্ধে শহীদ হওয়ার পর .....

১৭ টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

সাহু সিজদার সঠিক পদ্ধতি : সহীহ আল বুখারী

লিখেছেন: ' ABU TASNEEM' @ বুধবার, মে ২৩, ২০১২ (৭:৪০ পূর্বাহ্ণ)

1-BUKHARI

সকল প্রসংশা মহান আল্লাহ পাকের জন্য যিনি আমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন তাঁর ইবাদাত করার জন্য । এবং তাঁর ইবাদত করতে গিয়ে কোন ভুল করে ফেললে তা সংশোধনের সুন্দর ব্যবস্থা দিয়েছেন (যেমন সালাতে-সহু সেজদা) । সালাত এবং সালাম প্রিয় নাবী সাঃ জন্য যিনি আমাদেরকে সাহু সিজদা কিভাবে করতে হবে তা একধিকবার ব্যবহারিকভাবে শিক্ষা দিয়েছেন । আসুন আমরা সরাসরি হাদীসের আলোকে প্রিয় নাবী সাঃ এর সাহু সিজদার হাদীসগুলি দেখি এবং এর সাথে আমাদের আমালগুলি মিলিয়ে দেখি । সবগুলো গ্রন্থের হাদীস একপোস্টে দেয়া সম্ভব .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

‘আত তাক্বউইমুশ শামসি’ আগামী পৃথিবীর জন্য রচিত একটি আদর্শ সৌর ক্যালেন্ডার

লিখেছেন: ' antukhan' @ সোমবার, এপ্রিল ২৩, ২০১২ (২:৪৪ অপরাহ্ণ)

‘আত তাক্বউইমুশ শামসি’ সৌর ক্যালেন্ডার পৃথিবীর কোনো ক্যালেন্ডারের অনুকরণে তৈরি না করে বরং খাছ খোদায়ী মদদে ইলহাম, ইলকার মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে। এই সৌর ক্যালেন্ডারের প্রবর্তন এবং নামকরণ করেছেন খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, হুজ্জাতুল ইসলাম, মুজাদ্দিদ আ’যমে ছানী, আওলাদে রসূল, খলীফাতুল উমাম হযরত শাহযাদা হুযূর ক্বিবলা আলাইহিস সালাম। সুবহানাল্লাহ!

রোমান ক্যালেন্ডারে ৪টি মাস ছিল ৩১ দিনে, ৭টি মাস ছিল ২৯ দিনে, ১টি মাস ছিল ২৮ দিনে। এভাবে বছর ছিল ৩৫৫ দিনে। পরে তারা ২২ অথবা ২৩ দিনের একটি নতুন মাস প্রত্যেক দ্বিতীয় .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

নাস্তিকতা টেস্ট: আপনি কি আসলেই নাস্তিক হতে পেরেছেন?

লিখেছেন: ' সরোয়ার' @ রবিবার, জুন ১২, ২০১১ (১১:১৮ অপরাহ্ণ)

‘নাস্তিকতা’ ও ‘আস্তিকতা’ শুধুমাত্র দুটি বিপরীতার্থক শব্দ নয়। ব্যক্তিগত চিন্তা-স্বাধীনতার অধিকার বলে বিবেচনা করা হলেও এদের সুদূরপ্রসারী প্রভাব সমাজে প্রতিফলিত হয়, কেননা সমাজ হচ্ছে ব্যক্তির সমষ্টি। আস্তিকতার ভিত্তি হচ্ছে স্রষ্টা প্রদত্ত নৈতিকতার গাইডলাইন (যেমন কোরান, বাইবেল ও তোরাহ)। নৈতিকতা এবং সমাজের প্রচলিত রীতি-নীতি ও আইন-কানুন ওতপ্রোতভাবে জড়িত। অন্যদিকে নাস্তিকতাবাদের ভিত্তি হচ্ছে বস্তুবাদ। বর্তমানে এটা বিজ্ঞানের নামে বিবর্তনবাদ তত্ত্বের খোলসে প্রচার করা হয় (বিস্তারিত বিজ্ঞান, বিবর্তনবাদ ও নাস্তিকতা)। তাই .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

নাস্তিরা আসলেই বেকুব, নাকি নিজেদেরকে বেশি বুদ্ধিমান ভাবেন?

লিখেছেন: ' রাসেল আহমেদ' @ সোমবার, মে ১৬, ২০১১ (১১:১৪ পূর্বাহ্ণ)

আমরা মুসলমান। আমরা বিশ্বাস করি সব কিছুর সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহ। পৃথিবীতে যত ধর্মের মানুষ আছেন প্রত্যেকেই সৃষ্টি কর্তায় বিশ্বাসী। কিন্ত শুধু মাত্র গুটি কয়েক নাস্তিকরাই সৃষ্টি কর্তায় বিশ্বাসী না, না কোন ধর্মে বিশ্বাসী।তারা বিভিন্ন ব্লগে ইসলাম সম্পর্কে ভিবিন্ন ধরনের খারাপ মন্তব্য করে নিচে কিছু আলোচনা করলাম। আরিফ সাহেব নাম ধারী একজন এর বক্তব্য হল “এবং নব্য-নাস্তিক হলো ধর্মের কু-প্রভাবের বিরুদ্ধে যারা সচেতন” উনাকে যদি প্রশ্ন করা হয় ধর্মের কু প্রভাব কি? তাহলে উনার গুরুদের কাছ থেকে শিক্ষা নেয়া কয়েকটি মুখস্ত .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

প্রমানের দ্বায়িত্ব কার ? নাস্তিক নাকি আস্তিকের

লিখেছেন: ' ফুয়াদ দীনহীন' @ সোমবার, মার্চ ২১, ২০১১ (৮:০৩ অপরাহ্ণ)

নাস্তিকতাবাদের একটি বড় সমস্যা নামক পোষ্টে উল্লেখিত যুক্তির জবাব দিয়েছেন যুদ্ধদেব এবং দ্রোহের মন্ত্র, এই যুক্তিগুলির উপর পুনরায় মতামত তুলে ধরেছেন গৃহবন্দি ভাই। গৃহবন্দি ভাইয়ের ঐ পোষ্টে বিভিন্ন ব্যাক্তি তাদের যুক্তি তুলে ধরেছেন। আমরা প্রথমে আসি প্রমানের দ্বায়িত্ব প্রসংগে। এ ব্যাপারে আমার এক শিক্ষক বর্নীত গল্প শেয়ার করতে পারি। তিনি তার এক শিক্ষকের সাথে কোর্টের জেরায় উপস্থিত। তাদের ক্লাইন্ট একজন যুবক, বারের সামনে মারামারি করে এক ব্যাক্তির হাত-পা ভেংগে হাসপাতালে পাঠিয়েছে। সাক্ষী প্রায় ৩৯ জন, ক্লাইন্টকে বাঁচানোর কোন উপায় নেই। .....

১০ টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>