লগইন রেজিস্ট্রেশন

জুলাই, ২০১১ -এর আর্কাইভ

 

প্রতিবেশীদের সাথে ভাল ব্যবহার করা।

লিখেছেন: ' habib008' @ বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৮, ২০১১ (২:৩১ অপরাহ্ণ)

মানুষ সামাজিক জীব।একা একা মানুষ বাস করতে পারেনা। তাই তাকে সমাজে প্রতিবেশীদের সাথে মিলে মিশে বাস করতে হয়।সুখে দুঃখে তাদের পাশে থাকতে হয়। প্রতিবেশীদের সাথে ভাল ব্যবহার এর ফলে মানুষের সামাজিক জীবন শান্তিময় আর সুখের হয়। আর যদি প্রতিবেশীদের সাথে খারাপ ব্যবহার করা হয় , তাহলে তাদের সাথে ঝগড়া ফ্যাসাদ লেগেই থাকে , যার পরিণতিতে সামাজিক জীবনে অশান্তি নেমে আসে, অনেক সময় মারামারি কাটা কাটি মামলা মোকদ্দমা পর্যন্ত হয়।
তাই হাদিস শরিফে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

আন-নাওয়বীর চল্লিশ হাদীস (০৫)

লিখেছেন: ' এম এম নুর হোসেন' @ বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৮, ২০১১ (১২:২৯ অপরাহ্ণ)

“قل آمنت بالله ثم استقم”

عَنْ أَبِي عَمْرٍو وَقِيلَ: أَبِي عَمْرَةَ سُفْيَانَ بْنِ عَبْدِ اللَّهِ رَضِيَ اللهُ عَنْهُ قَالَ:
“قُلْت: يَا رَسُولَ اللَّهِ! قُلْ لِي فِي الْإِسْلَامِ قَوْلًا لَا أَسْأَلُ عَنْهُ أَحَدًا غَيْرَك؛ قَالَ: قُلْ: آمَنْت بِاَللَّهِ ثُمَّ اسْتَقِمْ”.

[رَوَاهُ مُسْلِمٌ: 38]

হাদীস – ২১

আবূ আমরকে আবূ আমরাহ্ও বলা হয়- সুফিয়ান ইবন আব্দুল্লাহ্ হতে বর্ণনা করেছেন-
আমি বললাম: হে আল্লাহর রাসূল! আমাকে ইসলাম সম্পর্কে এমন কিছু বলে দিন যেন আপনাকে ব্যতীত আর কারো কাছে কিছু জিজ্ঞাসা করার প্রয়োজন না হয়। তিনি বললেন: বল- .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

রাসুলুল্লাহ ( সা: ) এর যে সুন্নাহগুলি আমাদের সমাজে উপেহ্মিত …

লিখেছেন: ' sajiblobon' @ বুধবার, জুলাই ২৭, ২০১১ (৯:৩০ অপরাহ্ণ)

“যুহাইর ইবনে হরব ও শায়বান ইবনে আবী শায়বাহ আনাস রা: থেক রেওয়ায়েত করেছেন যে, রাসূলুল্লাহ (সঃ)বলেছেনঃ
কোন বান্দা সে পর্যন্ত মুমিন হতে পারবে না, যে পর্যন্ত না আমি তার নিকট তার পরিবার-পরিজন, ধন-সম্পদ ও অন্যান্ন সব লোকের তুলনায় অধিক প্রিয় হব।“(মুসলিম-ঈমান পর্ব:৭৪)
::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::
রাসুলুল্লাহ (সা: ) বলেছেন:
মুসলিম সেই, যার হাত ও জিহবা হতে অপর মুসলমান নিরাপদ (Muslim :: Book 1 : Hadith 65 )
:::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::

আবু যর রা: থেকে রেওয়ায়েত করেছেন যে, রাসূলুল্লাহ (সঃ)বলেছেনঃ
.....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

একজন মুসলমানের কোন মাযহাব মানা উচিৎ ? পর্ব ০১

লিখেছেন: ' shahedups' @ বুধবার, জুলাই ২৭, ২০১১ (৫:১৯ অপরাহ্ণ)

প্রশ্ন: সকল মুসলমান যখন একই আল্লাহর কিতাব ‘আল-কোরআন’ মেনে চলে, তাহলে তাদের মধ্যে এত উপদেশ কেন? তাদের চিন্তা-চেতনায় এত পার্থক্য কেন?

উত্তর: ১. মুসলমানদের ঐক্যবদ্ধ থাকা উচিৎ
এটা সত্য যে, আজকের মুসলমানরা অনেক দলে-উপদলে বিভক্ত। এটা অত্যন্ত দু:খজনক যে, এ বিভক্তি ইসলামে মোটেই অনুমোদিত নয়। ইসলাম তার অনুসারীদের নিরেট ঐক্যে বিশ্বাসী।
মহাগ্রন্হ আল কোরআন বলে—“তোমরা সকলে মিলে আল্লাহর রজ্জুকে দৃঢ়ভাবে আঁকড়ে ধর এবং পরস্পর বিচ্ছিন্ন হয়ে যেওনা।” [সূরা আলে-ইমরান-১০৩]
আল্লাহর সেই রজ্জুটি কিযাকে আঁকড়ে ধরার কথা এ আয়াতে বলা হয়েছে, তা .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

হযরত আল্লামা আহমদ শফী দা.বা-কে নিয়ে কালের কন্ঠে প্রকাশিত মন্তব্যের প্রতিবাদ [লেখক = ডঃ আ ফ ম খালিদ হোসেন।]

লিখেছেন: ' habib008' @ বুধবার, জুলাই ২৭, ২০১১ (৩:৫৫ অপরাহ্ণ)

গত ২৪ জুন কালের কন্ঠে প্রকাশিত জনাব মাহমুদ আহমদ সুমনের ‘আল্লাহ বিলাসিতা পছন্দ করেন না’ শীর্ষক লেথাটি এক পেশে ও আপত্তিকর। তিনি আল্লামা আহমদ শফী দামাত বারাকুতুহুমকে চিনেন না।তাঁর অসাধারণ ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে লেখকের কোন ধারনাই নেই। তাঁর বাড়ী ভৈরব নয়, চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থানায়। আল্লামা আহমদ শফী দামাত বারাকুতুহুম বাংলাদেশের বরেণ্য আলিমে দ্বীন, শায়খুল হাদীস, হাটহাজারী দারুল উলূমের মহা পরিচালক, মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, শায়খুল ইসলাম আল্লামা হোসাইন আহমদ মাদানী রহ.-এর অন্যতম খলিফা। তিনি তো ভিআইপি। তঁর সময়ের অনেক মূল্য। সর্বোপরি .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

স্বাগতম মাহে রমযান

লিখেছেন: ' mamunipc' @ বুধবার, জুলাই ২৭, ২০১১ (১:১৯ অপরাহ্ণ)

রমজান হিজরী বছরের নবম মাস। এই মাসটি বারো মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচিত মাস। যারা সারা বছর আরবি মাসের হিসাব রাখেন না এমন সব মুসলমানগণও এই মাসটির হিসাব রাখেন। রমজান মাস আগমনে অধিকাংশ মুসলমানের হৃদয়ে স্পন্দন জাগ্রত হয়, তারা আনন্দিত হন এই ভেবে যে, রহমত মাগফিরাত ও নাজাতের বার্তা নিয়ে আবার এসেছে মাহে রমজান। তারা রমজানকে স্বাগতম জানায়।
পক্ষান্তরে এমন কিছু মুসলমান রয়েছে, তাদের নিকট রমজান বিপদের মাস। তারা এই মাসকে স্বাগতম জানায় না। বরং খোব প্রকাশ করে, মনে মনে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

মুসলিম জাতির বিজয়ের পথে তুমিই প্রতিবন্ধক

লিখেছেন: ' habib008' @ বুধবার, জুলাই ২৭, ২০১১ (১০:১৮ পূর্বাহ্ণ)

সারা দুনিয়াতে মুসলমানদের দুরবস্থার খবর পড়ে আমি যখন চিন্তিত তখন আমার মন আমাকে সম্বোধন করে বলে উঠলো হে অমুক মুসলিম জাতির বিজয়ের পথে তুমিই প্রতিবন্ধক। মুসলমানদের উপর এত সব মুসিবতের জন্য তুমিই দায়ী।

আমি অবাক হয়ে গেলাম। বললাম আমি একজন নগণ্য মানুষ । আমার কাছে শক্তি নাই, ক্ষমতাও নাই। আমি কোন হুকুম দিলেও কেও মানবে না আর উপদেশ দিলেও কেও গ্রহণ করবে না , আমি কিভাবে দায়ী হলাম?

তখন আমার মন দ্রুত বলে উঠল দায়ী তোমার গুনাহ । যে গুনাহ তুমি আল্লাহর .....

১৯ টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

ইহুদী নাসারা তথা আমেরিকা ও ইউরোপ এর লজ্জা কবে হবে?

লিখেছেন: ' sbbd' @ মঙ্গলবার, জুলাই ২৬, ২০১১ (১২:০৬ অপরাহ্ণ)

আমেরিকা কোথায় না মাথা ঘামায়? যদি তা বিশেষ করে মুসলমানদের বিষয়ে বা দেশে হয়। আমাদের দেশে নারীদের মিরাছ এর ব্যাপারে তারা ও তাদের অনুচরেরা যে সমান অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছে তা অনুধাবন করতে কোন মুসলমান এর বুজতে বাকি নাই। ইহা তো মুস্তফা কামাল আতাতুর্ক ইহুদীর কাজেরই অনুসরনই মাত্র।
সম্প্রতি তাজিকাস্তানে সে দেশের নাস্তিক মার্কা সরকার এক নতুন নিয়ম চালু করেছে যে, আঠারো বছর বয়সের নিছে কোন শিশু বা যুবক দ্বীনি ইলম অর্জন করলে, বা মাসজিদে ইবাদতের জন্য গেলে তা সম্পুর্ন অন্যায় .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

রমজানে প্রাত্যহিক খাদ্য তালিকা যেমন হতে পারে

লিখেছেন: ' ফয়সল' @ মঙ্গলবার, জুলাই ২৬, ২০১১ (১২:০২ অপরাহ্ণ)

রমজানের রোজার রয়েছে আধ্যাত্মিক, শারীরিক, মানসিক, সামাজিক উপকারিতা; কিন্তু, যদি সঠিকভাবে রোজা পালন না করা হয় তবে তার উপকারিতা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে খর্ব হয়ে যেতে পারে। সর্বপ্রথমেই বলতে হয় ইফতার, ডিনার বা সেহরির সময়ে অতিরিক্ত খাদ্য গ্রহণের কোন প্রয়োজনই নেই। শরিরের একটি নিয়ন্ত্রক মেকানিজম আছে যা উপবাস সময়ে সক্রিয় হয়। শরীরের চর্বির পর্যাপ্ত ও দক্ষ ব্যবহার হয় এই সময়েই। কেননা, মৌলিক বিপাক প্রক্রিয়া রমজানের রোযার সময়ে ধীর হয়ে যায়। রমজান মাসের সময় একজন ব্যক্তির সুস্থ ও সক্রিয় থাকার জন্য একটি ডায়েটিং .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

সহীহ হাদীসের কষ্টি পাথরে যাচাইকৃত নামাযের বিধান-সূচি পর্ব ০১

লিখেছেন: ' shahedups' @ রবিবার, জুলাই ২৪, ২০১১ (৩:৫৮ অপরাহ্ণ)

নামাযের বিধান-সূচি
ইক্বামতের বাক্যগুলি এক একবার:
মিশকাত-২য় খন্ড, হা: নং ৫৯০, বাংলা অনুবাদ: মাউলানা নূর মোহাম্মদ আযমী, এমদাদীয়া লাইব্রেরী-চকবাজার-ঢাকা, মিশকাত-মাদরাসার পাঠ্য, আরাফাত পাবলিকেশন্স, ২য় খন্ড, হা: নং ৫৯০, বাংলা অনুবাদ, বুখারী শরীফ-(বাংলা অনুবাদ): মাউলানা আজিজুল হক-হামিদিয়া লাইব্রেরী, চকবাজার-ঢাকা, ১ম খন্ড, হা: নং ৩৭১, সহীহ আল-বুখারী-(আধুনিক প্রকাশনী, ২৫, শিরিশ দাস লেন, ঢাকা) : ১ম খন্ড, হা; নং ৫৬৮,৫৭০,৫৭১ ও ৫৭২, বুখারী শরীফ-(ইসলামিক ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ) : ২য় খন্ড, হা: নং ৫৭৪,৫৭৬-৫৭৮, মুসলিম শরীফ-(ই: ফা:) ২য় খন্ড, হা: নং ৭২২,৭২৩, তিরমিযী শরীফ-(ই: .....

১২ টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>