লগইন রেজিস্ট্রেশন

১লা বৈশাখের কুসংস্কার

লিখেছেন: ' হাফেজ মোঃ আল্-আমিন' @ মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১১ (৪:৪২ অপরাহ্ণ)

বাঙ্গালি জাতির একটি ঐতিহ্যবাহী দিন হলো পহেলা বৈশাখ। আরবী সনের প্রথম দিন হলো ১লা মহর্‌রম; ইংরেজী সনের প্রথম দিন হলো ১লা জানুয়ারী। কিন্তু ১লা বৈশাখের মত কুসংস্কার মনে হয় কোন সনের প্রথম তারিখে পালন করা হয় না। নিচে অল্প কিছু কুসংস্কার তথা ভিত্তিহীন বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করা হলোঃ-
১। সাত জাতের শাকঃ অন্তত সারা বছর শাক-সবজি খাওয়া না হলেও পহেলা বৈশাখের প্রথম দিনে গ্রামে-গঞ্জে সাত জাতের শাক বাধ্যতা মূলক। এতে নাকি মহাকল্যাণ নিহিত, যা একেবারে ভিত্তিহীন কথা এবং ইসলাম বহির্ভূত।
২। ধার-কর্যাঃ এ দিন ঋন করা যাবে না কারণ এ দিনে ঋন করলে সারা বছর নাকি ঋন করতে হবে। আমার মায়ের বক্তব্য হলো ‘ধার-কর্যা দেওয়া যাবে, কিন্তু আনা যাবে না। যদি ১লা বৈশাখের দিন ধার-কর্যা দেওয়া যায় তাহলে সারা বছর মানুষের উপকার করা যাবে।’ যা একেবারে ভিত্তিহীন কথা।
৩। শশুর বাড়ি যাওয়া বন্ধঃ এ দিন শশুর যাওয়া যাবে না, কারণ সারা বছর শশুর বাড়িতে ছুটাছুটি করতে হবে। এমন কথা কোর-আন হাদীসে না থাকায় এগুলো বেদ’আত।
৪। শুটকি খাওয়া যাবে নাঃ এ দিন শুটকি খাওয়া যাবে না। তাহলে সারা বছর মাছের মুখ দেখা যাবে না।
৫। পোরাতন পোষাক পরা যাবে নাঃ এ দিনে পুরাতন কাপড় পড়লে সারা বছর পোরাতন কাপর পরিধান করতে হবে।
এমন আরও অনেক হাস্যকর নিয়ম এই আধুনিক যুগে পালিত হয়। যা ইসলামী ঐতিহ্যের সাথে কোন মিল নেই। ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের মন রক্ষা করার জন্য তাদের মেলায় নিয়ে যাওয়া, মূর্তি কিনে দেওয়া, মেলা উপলক্ষে বাড়িতে মিষ্টি আনা এসব গুনাহের কাজ। উপরের আলোচনাগুলো পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে, ১লা বৈশাখে কোন কাজ করলে সারা বছর সে কাজ হয়, তাহলে যারা এসব কুসংস্কার সাথে জড়িত তাদের অনুরূদ করে বলব যে, ১লা বৈশাখের দিন খাওয়া দাওয়া বন্ধ রাখুন। কারণ সারা বছর খেতে হবে না, এতে অনেক আয় হবে! আসুন আমরা সবাই কুসংস্কার ত্যাগ করে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের পথ অনুসরণ করি। আল্লাহ আমাদের সকলকে কবুল করুন। (আমীন)

Processing your request, Please wait....
  • Print this article!
  • Digg
  • Sphinn
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Mixx
  • Google Bookmarks
  • LinkaGoGo
  • MSN Reporter
  • Twitter
১৩১ বার পঠিত
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (ভোট, গড়: ৫.০০)

১ টি মন্তব্য

  1. মহান আল্লাহ আমাদের কে এ সমস্ত কুসংস্কার থেকে হেফাজত করূন। আমীন। আপনাকে ধন্যবাদ। (F) (F) (F)