লগইন রেজিস্ট্রেশন

হজরত মাদানী (রহঃ) ও একজন হিন্দু ভদ্রলোক

লিখেছেন: ' হাফিজ' @ শনিবার, অক্টোবর ২৮, ২০১৭ (৪:১১ অপরাহ্ণ)

ভারতীয় উপমহাদেশের একজন প্রখ্যাত ইসলামিক স্কলার ছিলেন হজরাত মৌলানা হোসেন আহমেদ মাদানী। তিনি হজ থেকে ফেরার পথে ট্রেনে করে যাচ্ছিলেন। ট্রেনের কামরায় একজন হিন্দু ভদ্রলোক বসেছিলেন। হঠাৎ তার প্রাকৃতিক প্রয়োজন দেখা দিলে উনি টয়লেটে চলে গেলেন কিন্তু সাথে সাথেই আবার ফেরত আসলেন। হজরত মাদানী তাকে জিজ্ঞেস করলেন এতো দ্রুত কেন ফিরে এলেন? ভদ্রলোক বললেন “টয়লেট এতো নোংরা যে এই অবস্থা দেখে আর রুচি হলো না সেটা ব্যবহার করার।”
একথা বলে ভদ্রলোক বসে পড়লেন। কিছুক্ষন পর মাদানী (রহঃ) সবার অগোচরে টয়লেটে গিয়ে সম্পূর্ণ টয়লেট ভালোরূপে পরিষ্কার করলেন। তারপর হিন্দু ভদ্রলোককে বললেন “টয়লেট পরিষ্কার আছে, আপনি ব্যবহার করতে পারেন।” হিন্দু ভদ্রলোক গিয়ে দেখলেন সত্যিই টয়লেট পরিষ্কার। উনি ব্যবহার করলেন এবং ফিরে এসে বললেন আসলেই কেউ হয়তো এর মধ্যে যেয়ে টয়লেট পরিষ্কার করে গেছেন। উনি বিষয়টি বুঝতে পারলেন না।

সবাই ভাবতে লাগলো দুর্গন্ধ-পূর্ণ টয়লেট পরিষ্কার করলো কে? সেখানে আর একজন আলেম ছিলেন যার নাম খাজা নিজামুদ্দিন। তিনি রাজনৈতিক মতাদর্শের কারণে হজরত মাদানী (রহঃ) এর বিরোধিতা করতেন। তৎকালে হজরত মাদানী (রহঃ) ছিলেন ভারতবর্ষের প্রখ্যাত আলেম। তার সমর্থক ও বিরোধিতাকারী উভয়ই ছিল। ট্রেনের কামরায় অবস্থানকারী খাজা নিজামুদ্দিন, উনিও ছিলেন মাদানী (রহঃ) এর বিরোধিতাকারী একজন। তিনি বিষয়টি ঠিকই খেয়াল করেছিলেন যে হাজরাত মাদানী (রহঃ) নিজেই টয়লেট পরিষ্কার করেছেন। তিনি বিস্ময়ে অভিভূত হয়ে গেলেন। তিনি মাদানী (রহঃ) কে বললেন “আপনি একজন হিন্দুর জন্য নিজ হাতে টয়লেট পরিষ্কার করলেন !!! আপনি এতো বড়ো মনের মানুষ সেটা আমার জানা ছিল না। আমি আপনার বহু বিরোধিতা করেছি কিন্তু আজ আমি নিজে দেখতে পেলাম আপনার মহানুভবতা। আপনি আমায় ক্ষমা করে দিন।”

হজরত মাদানী (রহঃ) বললেন, “আমি শুধু মাত্র একটি সুন্নতের ওপর আমল করেছি।”

সবাই আশ্চর্য হয়ে জিজ্ঞেস করলো “কিভাবে?

হজরত মাদানী (রহঃ) বললেন একবার এক ইহুদি রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর মেহমান হিসেবে আসলো। সে ছিল খুব ক্ষুধার্ত। রাসূলুল্লাহ (সাঃ) তাকে খাবার খেতে দিলে তিনি প্রচুর খাবার খেয়ে ফেললেন। রাতে রাসূলুল্লাহ (সাঃ) তার থাকবার ব্যবস্থা করলেন। বদহজমের কারণে বিছানায় সে টয়লেট করে ফেললো। ভোরে ঘুম থেকে উঠে লজ্জার কারণে উনি পালিয়ে গেলেন। কিছুদূর যাবার পর তার মনে হলো তাড়াহুড়া করার কারণে ওনার তলোয়ারটি উনি ফেলে এসেছেন। সেই সময় আরবে “তলোয়ার” ছিল মূল্যবান একটি সামগ্রী এবং নিরাপত্তার জন্য সাথে রাখা খুবই জরুরি। এইধরণের ভাবনা চিন্তা করতে করতে সে রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর কাছে ফিরে এলো। তিনি আশা করেছিলেন তাকে দেখা মাত্রই রাসূলুল্লাহ (সাঃ) রাগারাগি করবেন। কিন্তু এসে দেখলেন রাসূলুল্লাহ (সাঃ) নিজ হাতে বিছানা পরিষ্কার করছেন এবং তাকে দেখা মাত্রই আফসোস করে বললেন “আপনার হয়তো রাত্রে অনেক কষ্ট হয়েছে।”

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর মুখে এই কথা শুনে ইহুদি আর চোখের পানি ধরে রাখতে পারলেন না। কেঁদে ফেললেন। তিনি বললেন “আল্লাহ আপনাকে সত্যি সুমহান চরিত্র দান করেছেন, পৃথিবীর কেউ সে চরিত্রের অধিকারী নয়। আমাকে আপনি কালেমা পরিয়ে মুসলমান করে দিন।”

এই ঘটনা বর্ণনা করার পর হজরত মাদানী (রহঃ) বললেন “আমার নবী (সাঃ) মেহমানের জন্য যে কাজ করেছিলেন আমি শুধুমাত্র সেই সুন্নত আদায়ের জন্য এই কাজ করেছি।”

Processing your request, Please wait....
  • Print this article!
  • Digg
  • Sphinn
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Mixx
  • Google Bookmarks
  • LinkaGoGo
  • MSN Reporter
  • Twitter
১০ বার পঠিত
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars ( ভোট, গড়:০.০০)