লগইন রেজিস্ট্রেশন

রাজধানীসহ সারাদেশে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ : আন্তঃধর্ম বিবাহ আইন বাতিল না করলে সরকারের পতন হবে

লিখেছেন: ' এম এম নুর হোসেন' @ বৃহস্পতিবার, মে ১২, ২০১১ (৬:৩৬ অপরাহ্ণ)

স্টাফ রিপোর্টার
Lp_koran-o-sunnahbirodhi
ইসলামী আন্দোলনের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী বলেছেন, বর্তমান সরকার বিগত ৪১ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ব্যর্থ সরকার। এ সরকার ইসলামবিরোধী সরকারে পরিণত হয়েছে। এ ব্যর্থ, জালিম ও দুর্নীতিবাজ সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিক সাগর-রুনি দম্পতি হত্যাকাণ্ডের বিচারের আশ্বাস দিলেও এখনও পর্যন্ত খুনিদের গ্রেফতার না করায় জনমনে আরও সংশয় ও আতঙ্ক বিরাজ করছে। এখন আবার ধর্মবিরোধী বিশেষ বিবাহ আইন করেছে। এ আইন বাতিল না করলে দেশের ইসলামপ্রিয় জনতা আওয়ামী লীগকে প্রত্যাখ্যান করবে। এ আইন বাতিল করতেই হবে। অন্যথায় এ সরকারের পতন হবে বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।
গতকাল বিকালে পুরানা পল্টন হাউজ বিল্ডিং চত্বরে ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। ইসলামী আন্দোলন ঘোষিত দেশব্যাপী জেলায় জেলায় বিক্ষোভ কর্মসূচি কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। দলের ঢাকা মহানগর সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন মহাসচিব অধ্যক্ষ ইউনুছ আহমাদ, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, মাওলানা লোকমান হোসাইন প্রমুখ।

অধ্যক্ষ ইউনুছ আহমাদ বলেন, সরকারের নৌকায় নাস্তিক-মুরতাদরা ভর করেছে। নাস্তিকদের প্ররোয়চনায় ইসলাম বিরোধী কাজ করলে সরকারের জন্য চরম বিপর্যয় ডেকে আনবে। সভাপতির বক্তব্যে এটিএম হেমায়েত উদ্দিন বলেন, সরকার দেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। দেশে লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করায় মানুষের মধ্যে উদ্বেগ-উত্কণ্ঠা বিরাজ করছে। তিনি অবিলম্বে কোরআন বিরোধী আইন বাতিল দাবি করেন।
এদিকে কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সারা দেশের জেলায় জেলায় ইসলামী আন্দোলনের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

Processing your request, Please wait....
  • Print this article!
  • Digg
  • Sphinn
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Mixx
  • Google Bookmarks
  • LinkaGoGo
  • MSN Reporter
  • Twitter
১৬৭ বার পঠিত
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (ভোট, গড়: ৫.০০)

১৯ টি মন্তব্য

  1. আমি অবাক হলাম। এখানে একটি কথাও ইসলামিক নয়। এই পোস্ট থেকে মানুষ কি ইসলামিক শিক্ষা নিতে পারবে? এই জাতীয় পোস্ট কিভাবে এখানে আসতে পারে। এটা একটা ইসলামী ব্লগ।

    বর্তমান সরকার বিগত ৪১ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ব্যর্থ সরকার। এ সরকার ইসলামবিরোধী সরকারে পরিণত হয়েছে। এ ব্যর্থ, জালিম ও দুর্নীতিবাজ সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে। এই কথার পক্ষে কি প্রমাণ আছে? গত বিএনপি সরকারের চেয়েও কি এই সরকার ব্যর্থ? গত বিএনপি সরকারের চেয়েও কি এই সরকার ইসলাম বিরোধী জালিম? গত বিএনপি সরকারের আমলে জামায়াতে ইসলামী নামক এক দল শরিক ছিল। ইসলাম সম্পর্ক যারা জানেন তারা খুব ভাল ভাবেই জানেন ইসলামের মধ্যে এত বড় ও এত দীর্ঘ স্থায়ী ঘুনে পোকা ইসলামের ইতিহাসে আর জন্মায় নি। বর্তমান সরকারের মিশনের মধ্যে এই ঘুনে পোকা নিধণও একটা মিশন। অথচ এই সরকারকে ইসলাম বিরোধী বলা হচ্ছে! এরচেয়ে বড় মিথ্যা কথা আর কি হতে পারে? গত সরকারের কোন কোন ব্যক্তির মদদে দেশে জংগীবাদের উত্থান হয়েছিল যা এদেশের আলেম উলামার প্রতি ছিল এক মহাদুর্যোগ। এই সরকার এই জংগীবাদ সমুলে উৎপাটন করেছে।

    ইসলামপ্রিয় জনতা আওয়ামী লীগকে প্রত্যাখ্যান করবে বাস্তব কথা হল জনগন ঘুরে ফিরে এই আওয়ামী লীগ বিএনপিকেই বেছে নিচ্ছে, আর এই সব ধর্ম বিকৃতকারীদের প্রত্যাখ্যান করছে। স্বাধীনতার পর থেকে তাই দেখা যাচ্ছে।

    সরকারের নৌকায় নাস্তিক-মুরতাদরা ভর করেছে। মহাসম্মানিত চরমোনাই হুযুর কার নৌকায় ভর করেছিলেন? মহাচোর, মহাবেহায়া, মহালম্পট এরশাদের নৌকায় ;)

    সরকার দেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে লাঠিসোটা নিয়ে জংগী মিছিল কারা করে?

    উপরে একটা মানুষের ছবি সম্বলিত পোস্টার দেয়া হয়েছে। ছবি সম্পর্কে ইসলামের ফয়সালা কি?

    এখন বিচারের ভার পাঠকদের হাতে ছেড়ে দিলাম, এদের সাথে ইসলামের সম্পর্ক কতটুকু?

    এম এম নুর হোসেন

    @guest, বাহ্ । মুটকি সাব।আ. লীগের দালালি করলেন নাকি, ইসলাম ,ইসলামী আন্দোলনের বিষেদাগার করলেন। :( :(

    guest

    @এম এম নুর হোসেন,আমি একজন মুসলমান। একজন মুসলমানকে এভাবে গালি দেয়াটা অন্য কোন মুসলামনের বৈশিষ্ট্য হতে পারে না। হাশরের ময়দানের ভয় কি আপনার হয় না? আমি কোন দালালী বা বিষেদগার করতে চাই নি। আমি আগেও বলেছি আমি মোটেই আওয়ামী সাপোর্টার নই। আমি শুধু চেয়েছি হাজারো ইউজারের মেহনতে জনপ্রিয় হওয়া এই সাইটকে কোন রাজনৈতিক দলের সংকীর্ণ স্বার্থে ব্যবহার হওয়া কে রুখতে। শত ব্লগারের মেহনতের এই ফসল কোন সংকীর্ণ স্বার্থে ব্যবহার করাটা কতটুকু ইসলাম সম্মত? আপনি রাজনীতি করবেন ভাল কথা এজন্য নিজে কষ্ট করে একটা সাইট বানান। http://wordpress.com/ এখানে থেকে আপনি ফ্রী সাইট করতে পারবেন। আমি আপনার অন্যান্য লেখার একজন ভক্ত।

    আপনার গালিতে আমি কষ্ট পেয়েছি। একজন মুসলমানের থেকে আমি গালি আশা করিনি। আমি কিছু প্রশ্ন করেছি উত্তর দিন। কোন ভুল করে থাকলে ধরিয়ে দিন। আপনি আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষমা না চাইলে আমি হাশরের ময়দানের জন্য এর বদলা রেখেদিলাম। আমি আপনাকে গালি দিব না।

    এম এম নুর হোসেন

    @guest, আপনার এই হীনমনভাব দেখে সত্যিই অবাক লাগে।বি এন পি -জামায়াতকে এর চেয়ে ভাল মনে করি না। তাই বরে আ.লগি এ ধরনের ইসলাম বিরোধী কাজ করলে তার প্রতিবাদ করবোনা!!! এ আবার কেমন দরবেশ!! কেমন মুসলমান!!! আপনি দেখছি এ দরনের কিছু দেখলে ফতোয়া শুরু করে দেন। আপনি এই বিবাহ আইন সমর্কেকে কি ধারনা????
    আপনি কি আ.লীগের এ কর্মকান্ড সর্মথন করেন????:? জানাবেন।

    guest

    @এম এম নুর হোসেন, আমি কোন হীনমন ভাব দেখাইনি। আমি কিছু জিনিস জানতে চেয়েছি। উত্তর পাই নি। পেয়েছি কিছু গালি। কেউ কোন ইসলাম বিরোধী কাজ করলে তার প্রতিবাদ করে হবে কি? বরং দরকার তা রোধ করা। এটা এই ব্লগে কারও মন্তব্য দেয়ার দ্বারা হবে না। একই ভাবে আরেকটি ইসলাম বিরোধী কাজ করেও হবে না। অন্যের মেহনতের ফসল নিজের ব্যক্তিগত বা রাজনৈতিক ফায়দার জন্য ব্যবহার করা অবশ্যই অন্যায়। একই ভাবে ছবি এক ধরণের মুর্তি। মুর্তি দিয়ে ইসলাম প্রতিষ্টা হবে না।

    ইসলাম বিরোধী কার্যকলাপ রুখতে হলে সব লাইনে সব ধরণের চেষ্টা চাই। তাদের কাছে যাওয়া, তাদের বুঝানো, এর লাভ ক্ষতি বুঝানো, বিভিন্ন ভাবে জনমত গঠন করা ইত্যাদি। এগুলো কিছু চরমোনাই হুযুর কে করতে দেখি না। শুঢু রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করার চেষ্টাই খালি চোখে দেখছি। কিছু মিছিল মিটিং, ফাকা গলা বাজিই শুধু দেখছি। অন্য আর কি কি করা হয়েছে একটু বুঝি বললে খুশই হতাম।

    এখন আপনিই বলুন আমি কি কি ভুল করেছি?

    এম এম নুর হোসেন

    @guest, আপনাকে গালি দেওয়া হয় নাই। বরং তাগুতের ব্যাপারে আপনাকে সতর্ক করলাম।আর আপনি দেখছি দেশের একজন স্বনামধন্য আলেমেদ্বীন এবং দ্বীনের সিপাহসালারকে নিয়ে বিষেদাগার আর মিথ্যা তহমতে মেতে উঠেছেন।

    অন্যের মেহনতের ফসল নিজের ব্যক্তিগত বা রাজনৈতিক ফায়দার জন্য ব্যবহার করা অবশ্যই অন্যায়। একই ভাবে ছবি এক ধরণের মুর্তি। মুর্তি দিয়ে ইসলাম প্রতিষ্টা হবে না।এই ব্কতব্য দ্বারা আপনি কি বুঝাতে চান??? আপনি উপরে যে কথা গুলে লিখেছেন একটু বিবেক দিয়ে চিন্তা করুন তো আপনি কার বিরুদ্বে কি বলেছেন????ছবি উঠানের মাসয়ালা আমরাও জানি। কিন্তু এই ছবি গুলি আমরা উঠাইছি? নাকি কে উঠালো, কোথায় থেকে এলো আপনিকি জানেন????

    কোন ব্যাক্তি মিথ্যাবাদি হওয়ার জন্য এতটুকু যথেস্ট, সে যা শুনে, তা বলে বেরায়।

    মানুষের ভিতর বিভ্রান্তি ছড়াবেন না। ইসলামে রাজনীতি কে কি হারাম ঘোষনা করেছে???? কোথায় পেলেন এই ফতোয়া???
    আমার মনে হয় আপনি তাবলিগ করেন। কিন্তু ইলিয়াছ রহ. কে এব্যাপারে নিষেধ করে গেছেন?? পারলে দেখান।আপনি যদি তাবলিগ করেন, তাহলে আল্লামা জাকারিয়া সাহেব রহ. এর ফাজায়েলে তাবলিগের অংশটুকু ভাল করে পড়ার জন্য অনুরোধ করছি।

    guest

    @এম এম নুর হোসেন, @guest, বাহ্ । মুটকি সাব। এটাকে আমি গালি হিসেবেই নিয়েছি। এর আগে এক পোস্টে আপনি আমাকে দালাল বলে গালি দিয়েছিলেন।

    আমি তাবলীগ করি এক কথাটা ভুল। বাস্তব কথা হল, ভুলের উপর জীবন কাটিয়ে এখন দ্বীন বুঝার জন্য চেষ্টা করছি। এজন্য বিভিন্ন আলেম উলামা ও বিভিন্ন মজলিস ও বিভিন্ন বই পুস্তক পড়ে দ্বীন সম্পর্কে ধারণা লাভের চেষ্টা করছি। মাওলানা ইলিয়াস ও যাকারিয়া রহ সম্পর্কে শুনেছি কিন্তু খুব ভালো জানি না। তাবলীগের অনেক ব্যপার প্রশ্ন বোধক! ফাযায়ালে আমল একটি বিরাট প্রশ্ন বোধক চিহ্ন। একই সাথে এস্টেমার ৭০ লাখ লোকের সমাগম এটা একটা ডাহা মিথ্যা ছাড়া কিছু না। এসতেমাতে ৭ লাখের বেশি লোক ধারণ করার কথা না। এই সব ব্যপারে জিজ্ঞাসা করেও আপনার মতই উত্তর পেয়েছি, অর্থাৎ কিছু গালাগালি। একই আচরণ আহলে হাদিস বা জামায়াতে ইসলামী ও বিভিন্ন পীর সাবদের থেকেও পেয়েছি। একারণে কারও উপরে আস্থা নেই। আল্লাহই ভরসা। বিভিন্ন কিতাবাদী পড়ার চেষ্টা করেছি।

    ইসলামে রাজনীতি হারাম কিনা এই প্রশ্ন আপনি আগেও করেছিলেন। আমারও একই প্রশ্ন ইসলামী রাজনীতির রূপ রেখা কি? এ নিয়ে আপনি কখনও কোন পোস্ট দেন নি। বরং এই ব্লগ টাকে আপনাদের রাজনৈতিক দলের মুকপাত্র বানাতে চেয়েছিলেন। এজন্য বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও আপনি রাজনৈতিক পোস্ট বন্ধ করেন নি।

    একই ভাবে ছবি আপনি উঠিয়েছেন একথা আমি কখনও বলিনি। আপনাদের ছবি যাতে না উঠানো হয় এজন্য কোন চেস্টা আপনারা করনে নি। যে ছবি উঠানো হয়েছে তা আবার প্রদর্শন করেছেন। এক লোক নিজে মুর্তি বানায় নি কিন্তু অন্যের বানানো মুর্তি ঘরে তুলেছে। আপনার পোস্টের বৈশিষ্ট্যও তাই।

    নবীজি কোন দল বানাননি। বরং মুসলমান বানিয়েছেন। দলের নামে অন্যকে গালি দেয়া, নিজ দলের দোষ না দেখা, ভুল বা ঠিক যাই করুক সব সময় নিজ দল বা বংশ কে সমর্থন করা এটাকে তিনি কঠোর ভাবে নিষেধ করে গেছেন। আপনারা সব সময় অন্যের দোষ দেখেন। নিজেদের দোষকেও বিভিন্ন ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেন।

    যেমন বর্তমান সরকার বিগত ৪১ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ব্যর্থ সরকার। এ সরকার ইসলামবিরোধী সরকারে পরিণত হয়েছে। এ ব্যর্থ, জালিম ও দুর্নীতিবাজ সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে। একথাটা পুরা সত্য নয়। এ সরকারের অনেক দোষ আছে কিন্তু গত চার দলীয় সরকারের চেয়ে এসরকার ব্যর্থ নয় এবং গত সরকার যত ইসলাম বিরোধী ছিল এ সরকার তত বিরোধী নয়। এ সরকারে ইসলামের পক্ষে অবদানও অনেক। পক্ষান্তরে গত সরকারের ইসলামের পক্ষে কোন অবদানই নেই।

    এ সরকারের কিছু ইসলামের পক্ষে কার্যকলাপ
    ১। সুদী প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ ব্যংক ও ব্রাকের কার্যকলাপ নিয়ন্ত্রন কর।
    ২। বিগত সরকারের আমলে বেড়ে উঠা জংগীবাদ বিন্দুমাত্রও প্রশ্রয় না দেয়া। গত আমালে পত্রিকায় ব্যপক প্রমাণ দেয়া সত্ত্বেও এক মন্ত্রী বলেছিলেন জংগীবাদ মিডিয়ার তৈরী, বাস্তবে নেই।
    ৩। ইসলামের বিষফোঁড়া ডেসটিনি বন্ধ করা। এটাও গত জোট সরকারের আমলে হয়েছে।
    ৪। জামাত শিবিরের কারখানা আলীয়া মাদরাসা বন্ধ করার জন্য একমুখী শিক্ষা চালু করা।
    ৫। সহীহ দ্বীনি শিক্ষার জন্য কওমী মাদরাসা কমিশন গঠন করা। গত সরকার এটা নিয়ে রাজনীতি করেছে। করি করছি বলে শেষ পর্যন্ত ঝুলিয়ে রেখেছে।
    ৬। ইসলামের দুশমন জামাত শিবির নির্মুল করা।

    এমন আরও আছে। আসলে খারাপ কে যেমন খারাপ বলতে হবে, ভালো কে ভালো বলতে হবে।

    আরও ওনেক কথা আছে। সময় পেলে বলব। আমি কারও বিরোধিতা করতে চাই না। জামাত শিবিরের কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। তাদের কিছু কিছু লেখা ভুল আকীদাগ্রস্থ হলেও এঅন্চ্ঞলে ইসলামী অর্থনীতি ও রাজনৈতিক রূপরেখা তারাই পূর্নাংগ বাভে পেশ করেছিল, যদিও তারা অগুলোর উপর অটল থাকেনি। আমি চরমোনাই হুযরেরও বিরোধিতা করছি না। কিন্তু কিছু প্রশ্নের জবাব পাইনা তাই কিছু প্রশ্ন করেছি। পরে সময় পেলে আরও করব। আপনি ইসলামী রাজননিতি করতে চাইলে, সাধারণকে ইসলামী রাজনীতি সচেতন করতে চাইলে, ইসলামী রাজনীতির কিছু বিধিবিধান, বা রূপরেখা বা কৌসল নিয়ে আলোচনা করতে পারেন। চরমোনাই হুযুরের ভক্ত হলে তার জীবন ও কর্ম্বে উপর প্রবন্ধ প্রকাশ করতে পারেন। কিন্তু দয়া করে এই ব্লগকে আপনাদের রাজনৈতিক দলের মুখপাত্র হিসেবে উপস্থাপন করার চেষ্টা করবেন না। বিনিত অনুরোধ!

    ম্যালকম এক্স

    @guest, এ সরকারের অনেক ভালো কাজ আপনি বললেন। এখন আপনার কাছে একটি প্রশ্ন, এ সরকাকরে কোনো কাজ কি আপনার ইসলাম বিরোধী মনে হয়েছে?

    guest

    @ম্যালকম এক্স,ভাই, কারো ভাল মন্দ আলোচনা মুখ্য নয়। এখানে বলা হয়েছিল দ্বীনি কোন প্রতিষ্ঠান (এই ব্লগকেও আমি প্রতিষ্ঠান বলব) বা দ্বীনি কোন বিষয় ব্যক্তি বা গোষ্ঠীগত কোন স্বার্থে কাজে লাগানো। অনেক ব্লগার ও পাঠক এই ব্লগকে অনেক দিন ধরে কষ্ট করে জনপ্রিয় করেছেন। এখন আলহামদুলিল্লাহ বাংলায় ইসলাম বা ইসলামী ব্লগ সার্চ দিলেও এই ব্লগ চলে আসে। আমি হুইজ সাইটে খোঁজ নিয়ে দেখেছি ৩ বছর ধরে এই সাইট চলছে। কিন্তু এঁই ব্লগার তাঁর রাজনৈতিক স্বার্থে ইসলামের নাম দিয়ে এই ব্লগকে ব্যবহার করছেন। এটা নিঃসন্দেহে নৈতিক অপরাধ। অন্য কোন রাজনৈতিক দলও এই হীন কাজটি করে না। কিন্তু তাঁরা ইসলামের নাম দিয়ে করছেন। অথচ এই পোস্টে ইসলামের কোন বিষয়ই নেই যা ইসলামী ব্লগের কনটেন্ট হতে পারে।

    এখানে সাগর রুনির কথাও এসেছে। অথচ এঁরা দুজনই টিভিতে কাজ করেছেন, দুজনই বেপর্দা অবস্থায় জীবন যাপন করতেন। বেপর্দা ফাসেক কে রাজনৈতিক ভাবে প্রমোট করা কতটুকু ইসলাম সম্মত? তাঁরা নিজেদের নাম দিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন। কিন্তু তাঁদের কোন কাজটি ইসলাম সম্মত আমি জানতে চেয়েছিলাম। দেয়ালে মাঝে মাঝে চরমোনাইয়ের মহান পীরের মহৎ বাণী দেখি, নেতার নয় নীতির পরিবর্তন চাই। কিন্তু তাঁদের নীতির সাথে াওয়ামী বিএনপির কোন পার্থ্ক্য দেখতে পান কি? তাঁরাও অতি রন্চিত কথা বলেন আওয়ামী বিএনপিও বলে, আওয়ামী বিএনপিও যেগুলোকে রাজনৈতিক ইস্যু বানায় তাঁরাও বানান যেমন সাগর-রুনি, আওয়ামী বিএনপিও ছবি তুলে তাঁরাও করছেন, মনমত না হলে আওয়ামী বিএনপিও গালাগালি করে তাঁরাও করছেন, আওয়ামী বিএনপিও জনবিরোধী হরতাল করে বা সমর্থন দেয়া তাঁরাও দিচ্ছেন, আওয়ামী বিএনপিও নিজেদের নীতির বাইরে অন্যদলের সাথে নির্বাচনী জোট করছে তাঁরাও করেছেছিলেন, আওয়ামী বিএনপিও অপর দলের নেতা কর্মীকে গালাগালি করে তাঁরা করছেন। কয়েক দিন আগে এই ব্লগার কোন এক প্রসংগে বংগবন্ধুকে গালি ও মিথ্যা অপবাদ দিয়েছেন। মিথ্যার রাজনীতি কাফেরদের দেশের রাজনৈতিক দলগুলোও করে না। কিন্তু তাঁরা ইসলামী আন্দোলন হওয়া সত্তেও করছেন। এটা কেমন ইসলাম! এটা কোন ইসলাম!!

    এমন সব ব্যপারেই আওয়ামী-বিএনপি ও তথাকথিত ইসলামী আন্দোলনে অদ্ভুত মিল। এর কোন ব্যাখ্যা তাঁদের কাছ থেকে কখনও পাইনি। এঁই ব্লগার প্রায়ই প্রশ্ন করেন ইসলামে রাজনীতি হারাম কিনা? এই প্রশ্ন আমারও, তবে একই সাথে ইসলামী রাজনীতির রূপরেখাও তাঁর কাছে আমি জানতে চেয়েছিলাম। উনি কোন রূপরেখা এখনও বলেননি। আমি উনার কাছে আবারও দাবী করছি, একই সাথে এই রূপরেখা বাস্তবায়নে উনারা কি কি পদক্ষেপ নিয়েছেন এবং তা কিভাবে বাস্তবায়িত হচ্ছে তারও একটা রোডম্যাপ আশা করছি।

    এখন আপনার (ম্যালকম এক্স) কাছে আমার প্রশ্ন কোন লোক যদি কখনও ইসলাম সম্পর্কে জানতে এই ব্লগে আসে আর সে এই সব রাজনৈতিক পোস্ট দেখে এই ব্লগকে একটি রাজনৈতিক দলের মুখপাত্র মনে করে মুখ ফিরিয়ে নেয় (অথচ অনেক কল্যাণময় জিনিস সে এখান থেকে পেতে পারত) অথবা এই সব তথাকথিত ইসলামী রাজনৈতিক কর্মকান্ড দেখে ইসলাম ও আলেম সম্পর্কে ভুল ধারণা নেয় তাহলে কি আমাকে আপনাকে জবাবদিহি করতে হবে না? এই ব্লগে গত এক বছরে এঁই ব্লগারের পোস্টই সর্বোচ্চ। এবং তাঁর অধিকাংশ পোস্ট ইসলামী কোন কনটেন্ট বিবর্জিত রাজনৈতিক দলের পোস্ট। তাই যে কোন সাধারণ পাঠক এই ব্লগকে ঐ রাজনৈতিক দলের মুখপাত্র হিসেবে ভুল বিবেচনা করে বসতে পারে।

    তাই এই ব্লগারের কাছে বিনিত অনুরোধ থাকবে এই জাতীয় পোস্ট আর না দেয়ার জন্য। ব্লগার যদি মনে করেন যে এর দ্বারা তাঁর রাজনৈতিক দলের জনপ্রিয়তা বাড়বে, আমি বলব মোটেই তা নয়। বরং আপনার আচরণ ও গালাগলিতে মানুষ আপনার দল সম্পর্কে ভুল ধারণা নিবে।

    আপনার (ম্যালকম এক্স) কাছে অনুরোধ এই জাতীয় পোস্ট দেখলে প্রতিবাদ করুন

    জাহিদ

    @guest, বাহ মুটকি সাব। আপনাকে তো ইনি মুটকি সাব বলে সম্মান রক্ষা করেছে,বরং আপনাকে বলা দরকার ছিল ফাসেক। নির্লজ্জ আ. লীগের দালালি করেন আর এখানে ইসলামের কিছু পান না।সব খালি ইসলাম বিরোধি দেখেন। আপনি কি করেন তা আগে দেখেন। শুধু মানুষের মাঝে বিভ্রন্তি ছড়ানে আপনারা উস্তাদ। আবার দরবেশি করেন।এ সমস্ত ছাগু ব্লগারদেরকে ব্যান করা হোক।

    ম্যালকম এক্স

    @guest, এই ব্লগে আমি যতদুর জানি “সরকার-বিরোধী” কিংবা “রাজনৈতিক” আলোচনা নিষেধ।

    http://www.peaceinislam.com/termsofuse/

    ১.৪। প্রচলিত কোনো সিসটেম ইসলাম বিরোধী হলে সেটা সম্বন্ধে আপনি মত দিতে পারেন , কোনো রাজনৈতিক দল কিংবা ক্ষমতাসীন দলকে আক্রমন না করে।

    জাহিদ

    @guest, @guest, লিখেছেন- এ সরকারের কিছু ইসলামের পক্ষে কার্যকলাপ
    ১। সুদী প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ ব্যংক ও ব্রাকের কার্যকলাপ নিয়ন্ত্রন কর।
    ২। বিগত সরকারের আমলে বেড়ে উঠা জংগীবাদ বিন্দুমাত্রও প্রশ্রয় না দেয়া। গত আমালে পত্রিকায় ব্যপক প্রমাণ দেয়া সত্ত্বেও এক মন্ত্রী বলেছিলেন জংগীবাদ মিডিয়ার তৈরী, বাস্তবে নেই।
    ৩। ইসলামের বিষফোঁড়া ডেসটিনি বন্ধ করা। এটাও গত জোট সরকারের আমলে হয়েছে।
    ৪। জামাত শিবিরের কারখানা আলীয়া মাদরাসা বন্ধ করার জন্য একমুখী শিক্ষা চালু করা।
    ৫। সহীহ দ্বীনি শিক্ষার জন্য কওমী মাদরাসা কমিশন গঠন করা। গত সরকার এটা নিয়ে রাজনীতি করেছে। করি করছি বলে শেষ পর্যন্ত ঝুলিয়ে রেখেছে।
    ৬। ইসলামের দুশমন জামাত শিবির নির্মুল করা

    দালালেরও একটা সীমানা আছে। সীমানা ছাড়া দালালি। যে সরকার প্রতি মুহুর্তে ইসলাম কে সমূলে ধ্বংস করার চেষ্টা লিপ্ত সে জালিম সরকারে পক্ষে কেমন সুন্দর সাফাই করল এক দালাল। আবার দরবেশি দেখায়!!!!!

    ম্যালকম এক্স

    @guest,

    কিন্তু দয়া করে এই ব্লগকে আপনাদের রাজনৈতিক দলের মুখপাত্র হিসেবে উপস্থাপন করার চেষ্টা করবেন না। বিনিত অনুরোধ!

    সহমত।

    জাহিদ

    @ম্যালকম এক্স, ভাই আপনি কি রাজনীতি কে হারাম মনে করেন??? মানুষের সচেতনতার জন্য এ সকল অপকর্মের বিরুদ্বে এই আন্দোলন গুলি শুধু এই ব্লগে কেন যে যেখানে পারে সেখান থেকে প্রচার করা দরকার বলে আমি মনে করি।

    ম্যালকম এক্স

    @জাহিদ, শরীয়ত সম্মত উপায়ে রাজনীতি করায় তো কোনো দোষ দেখি না।

    ম্যালকম এক্স

    @guest,
    এ সরকারের কিছু ইসলামের পক্ষে কার্যকলাপ
    ১। সুদী প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ ব্যংক ও ব্রাকের কার্যকলাপ নিয়ন্ত্রন কর।

    এটা ইসলামি হোলো কিভাবে আপনি একটু ব্যাখ্যা করবেন কি?

  2. আমি ব্লগ কতৃপক্ষকে বলবো।উনি আ.লীগের ইসলামের পক্ষের কার্যকলাপ তুলে দরেছেন যা সম্পূন্য ইসলাম বিদ্বেষি।উনার চরিত্র এখানে পরিস্কার।উনি আসলে কি ইসলাম চায়???
    আপনারা কি উনার কথা এ লেখাটি প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে দিয়েছেন????? আপনারা কি ইসলামী রাজনীতি সমর্থন করেন??? জানাবেন। কোন ফাসেকের কথা এই লেখা প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে দেওয়ার তীব্র নিন্দা জানাই।আশা করি এ দরনের কাজ থেকে বিরত থাকবেন।যদি তা না করেন তা হলে আমাদেরকে ব্যান করে দেওয়ার অনুরোধ রহিল।

    উনার মন্তব্য গুলো দেখেন-উনার মাথা ব্যাথা এই লেখাটি নিয়ে নয়,বরং উনার মাথা ব্যাথা হল আ.লীগ বিরোধী লেখা নিয়ে।আর উনি আ.লীগের পক্ষে কি সুন্দর দালালি করলো তা লেখকের আগের একটি লেখাও দেখতে পারেন উনার মন্তব্য।

    কর্তৃপক্ষ [ পিস-ইন-ইসলাম ]

    @জাহিদ,
    আসসালামু আলাইকুম,

    কারো কথায় এই পোস্টটি প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে দেয়া হয়নি। ব্লগে লেখা দেবার যে নীতিমালা তার সাথে সাংঘর্ষিক হবার কারণে লেখাটি প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে দেয়া হোলো:

    http://www.peaceinislam.com/termsofuse/

    [ পোস্ট ডিলিট বা প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে দেবার নীতিমালা ২.০ ]

    যে সমস্ত কারনে কোনো লেখা ডিলিট কিংবা প্রথম পাতা থেকে সরিয়ে দেয়া হতে পারে :

    ২.৪। লোকাল পলিটিক্স কিংবা ইলেকটেড গভর্মেন্ট বিষয়ে কোনো লেখা ।

    এখানে কেউ যেন মনে না করে আমরা নির্দিষ্ট কোনো রাজনৈতিক দলের সমর্থক।

    ওয়াস্সালাম

  3. @guest, লিখেছেন- এ সরকারের কিছু ইসলামের পক্ষে কার্যকলাপ
    ১। সুদী প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ ব্যংক ও ব্রাকের কার্যকলাপ নিয়ন্ত্রন কর।
    ২। বিগত সরকারের আমলে বেড়ে উঠা জংগীবাদ বিন্দুমাত্রও প্রশ্রয় না দেয়া। গত আমালে পত্রিকায় ব্যপক প্রমাণ দেয়া সত্ত্বেও এক মন্ত্রী বলেছিলেন জংগীবাদ মিডিয়ার তৈরী, বাস্তবে নেই।
    ৩। ইসলামের বিষফোঁড়া ডেসটিনি বন্ধ করা। এটাও গত জোট সরকারের আমলে হয়েছে।
    ৪। জামাত শিবিরের কারখানা আলীয়া মাদরাসা বন্ধ করার জন্য একমুখী শিক্ষা চালু করা।
    ৫। সহীহ দ্বীনি শিক্ষার জন্য কওমী মাদরাসা কমিশন গঠন করা। গত সরকার এটা নিয়ে রাজনীতি করেছে। করি করছি বলে শেষ পর্যন্ত ঝুলিয়ে রেখেছে।
    ৬। ইসলামের দুশমন জামাত শিবির নির্মুল করা

    দালালেরও একটা সীমানা আছে। সীমানা ছাড়া দালালি। যে সরকার প্রতি মুহুর্তে ইসলাম কে সমূলে ধ্বংস করার চেষ্টা লিপ্ত সে জালিম সরকারে পক্ষে কেমন সুন্দর সাফাই করল এক দালাল। আবার দরবেশি দেখায়!!!!!