লগইন রেজিস্ট্রেশন

রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর প্রতি ভালবাসার এক উজ্জল দৃষ্টান্ত ও আমাদের করনীয়।

লিখেছেন: ' এম এম নুর হোসেন' @ রবিবার, জুন ৩, ২০১২ (৭:৩৫ অপরাহ্ণ)

রাহমাতুল্লিল আলামানি হুজুর (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম)।কোটি কোটি মুমিনের হৃদয়ের স্পন্দন। হুজুর (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর জন্য আমাদের জান মাল কোরবান হোক ইহা মুমিন বলতে মনের তামান্না। আসুন আমরা সাহাবায়েকরাম (রাদি.) মাধ্যমে হুজুর (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) কে মহব্বতের দৃষ্টান্ত শিখি।

রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর আশেক সাহাবী। তার মন খুবই ভিষন্ন। রহমাতুল্লিল আলামিন,ইমামুল মুরসালিরে দরবারে নিজের ভিতর রাখা হৃদয় ভরা ভালবাসার প্রকাশ করলেন।সে একজন যুবক সাহাবী। নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর নিকট আসলো এবং বললো, “ও আল্লাহর রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম)! আমি আপনাকে আমার নিজের প্রানের, পরিবারের এবং সন্তানদের থেকেও বেশী ভালবাসি। যখন আমি ঘরে থাকি আর মাঝে মাঝে যখন আপনার কথা মনে পড়ে তখন আপনার নিকট এসে আপনাকে না দেখা পর্যন্ত আমার অন্তর শান্তি পায় নাহ। যখন আমি আমার ও আপনার মৃত্যু পরবর্তী জীবন সম্পর্কে ভাবি তখন আমার এই ধারনা হয় যে, আপনি জান্নাতে থাকবেন নবীদের সাথে আর আমার তাই ভয় হয়, আমি যদি জান্নাতে প্রবেশ করি তাহলে হয়ত আপনাকে দেখতে পাবো নাহ।” নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) প্রতিউত্তর করলেন না, নিরব থাকলেন।

কিন্তু মহান আল্লাহ্‌ ঐ যুবককে উদ্দেশ্য করে একটি আয়াত নাজিল করেন। “আর যে কেউ আল্লাহ ও রাসূলের অনুগত হয়, তবে তারা ঐ ব্যক্তিদের সংগী হবে যাদের প্রতি আল্লাহ অনুগ্রহ করেছেন; অর্থাৎ নবীগণ, সত্য সাধকগণ, শহীদগন ও সৎকর্মশীলগণ এবং এরাই সর্বোত্তম সঙ্গী”। সূরা আন-নিসা, আয়াতঃ ৬৯।

সুবহানাল্লাহ, সেই যুবক কতইনা সৌভাগ্যবান যে স্বয়ং আল্লাহ সাত আসমানের উপর থেকে তার প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন নবী মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর মাধ্যমে!! সে নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর প্রতি ভালবাসা প্রকাশ করেছিলো, সে তাঁকে (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) ভালবেসেছিলো আল্লাহ এর সন্তুষ্টি ও করুনা প্রাপ্তির আশায় যাতে করে সে পরকালে জান্নাত লাভ করতে পারে আর মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর সান্নিধ্য পরকালেও যেন লাভ করতে পারে। তার চিন্তা চেতনার অধিকাংশই পরকালের প্রাপ্তির কথা বিরাজ করছিলো!

কিন্তু আজ আমাদের কি হয়েছে? আমরা অবিশ্বাসীদের রীতি-নীতি আর সংস্কার রপ্ত করার পিছনে মত্ত হয়ে পড়েছি!! মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) কে ভালবেসে তাঁর সুন্নাহ এর অনুসরন করার কথা আমাদের চিন্তা চেতনা থেকে কি করে লোপ পেয়ে গেলো! আমরা মুসলমানরা আজ আল্লাহ এর আদেশ এর প্রতি অবজ্ঞা প্রকাশ করছি আর মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর সুন্নাহকে হাত থেকে ছেড়ে দিয়েছি। এভাবে চলতে থাকলে শেষ নিঃশ্বাস এর সাথে সাথে সব কিছুই ব্যার্থ পর্যবসিত হবে তাতে কোন সন্দেহ নাই।

আল্লাহ এর বিভিন্ন সতর্কতা মূলক আভাস সম্পর্কে ও বিভিন্ন রকম নিদর্শন সম্পর্কে পড়ছি, জানছি ও প্রত্যক্ষ করছি, অথচ তা থেকে আমরা শিক্ষা গ্রহণ করছি না, অথবা সেসব আলামত গুলিকে সম্পূর্ণ রূপে উপেক্ষা করছি। দুঃখজনকভাবে, আজকে আমাদের সমাজ ব্যাবস্থা সত্যি অবাক।

আমাদের পারিবারিক,সমাজিক,অর্থনৈতিক,রাজনৈতিক ও আর্ন্তজাতিক মহল পযর্ন্ত সর্বস্তরে ইহুদী-খৃষ্টানদের কালচার অনুসরন করি।আমাদের গোটা জীবন ব্যাস্থার মধ্যে আল্লাহ তার রাসূলের সা. আদর্শতো নেই বরং আরো কত নিন্দনীয় করে রেখছি। আল্লাহর নবী মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) বলেন, “যে অনুকরণ করে (অন্য ধর্মালম্বীদের) সে তাদেরই একজন।” (আহমাদ, ২/৫০; আবু দাঊদ, নাম্বারঃ ৪০২১) মুহাম্মদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) বলেন, “একজন ব্যাক্তি দুনিয়ার পরের জীবনে তাদের সাথেই অবস্থান করবে যাদের সে দুনিয়াতে ভালবাসে।” (বুখারী)

Processing your request, Please wait....
  • Print this article!
  • Digg
  • Sphinn
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Mixx
  • Google Bookmarks
  • LinkaGoGo
  • MSN Reporter
  • Twitter
৮৭৬ বার পঠিত
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (ভোট, গড়: ৫.০০)

১৮ টি মন্তব্য

  1. আপনাকে ধন্যবাদ এবং এ বিষয়ে সবার পক্ষ থেকে আরো লিখা আশা করছি।কারন হযরত ওমর রাঃ কেও এই মহব্বত শিখতে হয়েছিল স্বয়ং রসুল পাক সাঃ এর কাছ থেকে ।কারন আমাদের জীবনের সবকিছুর থেকেও যদি রাসুল পাক সাঃ কে আমরা ভালো বাসতে না পারি তবে আমরা প্রকৃত মোমিন হতে পারবো না।রসুল পাক সাঃ বলেন, ‘তোমরা জান্নাতে প্রবেশ কর‌্তে পারবে না মোমিন না হওয়া পর্যন্ত, আর মোমিন হতে পারবে না পারস্পরিক ভালবাসার বন্ধনে আবদ্ধ না হতে পারলে’ (তাফসিরে মাযহারী) ।রসুল পাক সাঃ এর প্রতি ভালবাসাতো অনেক দুরে।
    আল্লাহপাক আমাদেরকে রসুল পাক সাঃকে প্রকৃত ভালবাসার তৌফিক দান করুন।আমিন ।

    এম এম নুর হোসেন

    @দেশী৪৩২, শুকরিয়া, (F) (F) (F)

  2. অনেক ধন্যবাদ।অনেক শিক্ষানিয়। জাযাকাল্লাহ। (F) (F)

    এম এম নুর হোসেন

    @জাহিদ, আপনাকেও ধন্যবাদ। (F) (F) (F)

  3. এ ব্লগের ব্লগারেরা মন্তব্য করেনা কেন আমার বুঝে আসেনা। :( :( :(

    এম এম নুর হোসেন

    @জাহিদ, এরা ঝিমায়া গেছে।ধন্যবাদ।

  4. অনেক কিছু শিখলাম । শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ ভাই আপনাকে ।

    এম এম নুর হোসেন

    @জাহিদ, আপনাকেও ধন্যবাদ।

  5. নিম্নের বইটি http://www.mediafire.com/view/?8yy0sdymdfy9vsr রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর প্রতি ভালবাসা আরো বৃদ্ধি করবে ইনশাআল্লাহ।

    এম এম নুর হোসেন

    @দেশী৪৩২, কোথায় ভাই । এখানে তো কোন বই পাইলাম না।

    দেশী৪৩২

    @এম এম নুর হোসেন, লিঙ্ক ক্লিক করলেই পাবেন http://www.mediafire.com/view/?8yy0sdymdfy9vsr
    ধন্যবাদ।

  6. নিম্নের বইটিও রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম) এর প্রতি ভালবাসা আরো বৃদ্ধি করবে ইনশাআল্লাহ।
    http://www.mediafire.com/view/?nrfi9w6d7ffpa2f

    এম এম নুর হোসেন

    @দেশী৪৩২, বইটি ডাউনলোড হয় না।

    দেশী৪৩২

    @এম এম নুর হোসেন, আমি চেষ্টা করলাম, হয়তো। আপনার প্রগ্রামে কোন সমস্যা আছে মনে হয়। অন্য কম্পিউটার থেকে চেষ্টা করতে পারেন।ধন্যবাদ।

  7. সুন্দর লিখার জন্য ধন্যবাদ.. (F)

    এম এম নুর হোসেন

    @পরকালের যাত্রী, আপনাকেও ধন্যবাদ। (F)

  8. জাযাকাল্লাহু খায়রান । আল্লাহ পাক সকলকে সহীহ বুঝ দান করুন ।

    এম এম নুর হোসেন

    @sotter, শুকরিয়া, আমিন। (F)