লগইন রেজিস্ট্রেশন

সফটওয়্যার রিভিউ : আপনার শিশুর হাতে তুলে দিন নিরাপদ ইন্টারনেট

লিখেছেন: ' ইঊসুফ সুলতান' @ শুক্রবার, জুন ১৮, ২০১০ (৪:০৩ অপরাহ্ণ)

তথ্য-প্রযুক্তির অব্যাহত উৎকর্ষতা পুরো বিশ্বটাকে আমাদের মুঠোয় পুরে দিয়েছে। পড়াশোনা, গবেষণা, ব্যবসা-বাণিজ্য, ধর্ম-কর্ম সব চলে ইন্টারনেটে। আলো আসার আশায় তাই আমরা ইন্টারনেট তুলে দিচ্ছি আমাদের কোমলমতি শিশু-কিশোরদের হাতে। সাইবার ক্যাফে গড়ে তুলছি, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্রি ইন্টারনেট এ্যাক্সেস দিচ্ছি। জেগে জেগে স্বপ্ন দেখছি একটি তথ্য-প্রযুক্তি নির্ভর আগামী প্রজন্মের।

কিন্তু সম্প্রতি সাইবার ক্রাইম রিপোর্টগুলো আমাদের সোনালী স্বপ্নের আশু ভঙ্গনের অশনি সংকেত শোনাচ্ছে। পর্ণোগ্রাফি, হ্যাকিং, ফিসিং, অস্ত্র প্রদর্শনী, ড্রাগ ইত্যাদি বিভিন্ন কারণে ইন্টারনেট এখন শিশু-কিশোরদের জন্য সবচেয়ে অনিরাপদ প্রযুক্তি। শিশুর কোমল মস্তিস্ক সহজেই বিকৃত করতে পারে এ প্রযুক্তি।

শিশু-কিশোরদের অবাধ যৌনাচরণ, ড্রাগ এ্যাডিকশন, ক্রিমিনাল এ্যাকটিভিটি – এ সব কিছুর জন্য অনেকটাই দায়ী বর্তমান ইন্টারনেট। আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে হয়ত আমার এ দাবীটা এখনই সবাই মেনে নিতে পারবেন না। হয়ত বলবেন, ইন্টারনেটের চেয়ে হলিউড আর বলিউডের প্রভাব কম কীসে? কিন্তু বিশ্বের অন্যান্য দেশের পরিসংখ্যান এটাই বলে যে, যত দ্রুত এ দেশে ইন্টারনেট ছড়িয়ে যাবে, তত দ্রুত এটি বলিউড-হলিউডের চেয়ে বেশি ভয়ংকর ও ক্ষতিকর হয়ে দাঁড়াবে।

ইন্টারনেটের ভালো দিক অবশ্যই আছে। কিন্তু শিশু-কিশোরের সে সব ভালো দিকগুলোতে আটকে রাখা খুব কঠিন ব্যাপার। বর্তমান বিশ্বের অন্যতম বড় ব্যবসায়িক ইন্ডাস্ট্রি হলো পর্ণো ইন্ডাস্ট্রি। সার্চ ইঞ্জিনসহ সব বড় বড় জনপ্রিয় সাইটই পর্ণো ইন্ডাস্ট্রিকে সাথে নিয়ে কাজ করে।

সব মিলিয়ে শিশু-কিশোরদের হাতে ইন্টারনেট তুলে দিতে একজন অভিভাবক হিসেবে সবসময়ই আমাদের আতঙ্কিত থাকতে হয়। আর সে জন্যই আজকের এই সফটওয়্যার রিভিউ।

এই সফটওয়ারটি দিয়ে ব্যক্তিগত কম্পিউটার বা এক নেটওয়ার্কভুক্ত একাধিক কম্পিউটারে ইন্টারনেট এ্যাক্সেসে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা সম্ভব। সফটওয়্যারটির একাধিক শক্তিশালী অপশন সে নিয়ন্ত্রণকে আরো সুচারুরূপে আরোপ করতে সাহায্য করে।

নিম্নে ধাপে ধাপে সফটওয়ারটির ডাউনলোড, ইন্সটলেশন ও ব্যবহারবিধি সচিত্র তুলে ধরা হলো। আশা করি অনেকে উপকৃত হবেন।

ডাউনলোড ও ইন্সটলেশন :

ক. লিংক : http://www1.k9webprotection.com/

এই সাইটে গিয়ে ডান পাশে ‘Download k9 protection today for free’ তে ক্লিক করুন।

Image Link

খ. এরপর যে পেইজ আসবে, সেখানে নাম ও ই-মেইল লিখুন।

Image Linkগ. এরপর আপনার ই-মেইল ক্লায়েন্ট খুলুন। তাতে একটি ই-মেইল পাবেন।

Image Link

ঘ. ই-মেইলে একটি লিংক ও পাসওয়ার্ড দেয়া থাকবে। লিংকে (Download K9 web protection) ক্লিক করুন এবং পাসওয়ার্ড সংরক্ষণ করুন।

Image Linkঙ. লিংকে দেয়া পেইজে গিয়ে আপনার ব্যবহৃত অপারেটিং সিস্টেমের লিংকে ক্লিক করুন।

Image Link

— এরপর সফটওয়্যারটি ডাউনলোড হবে।

চ. ইন্সটলেশন শুরু করার পর নিম্নের চিত্রের মতো লাইসেন্স চাওয়া হবে। সেখানে ই-মেইলে পাওয়া পাসওয়ার্ডটি লিখে দিন।

Image Link

ছ. পরে নিম্নের চিত্রের মতো পাসওয়ার্ড দেয়ার অপশন আসবে। সেখানে পছন্দমত এ্যাডমিন পাসওয়ার্ড দিন। এটা পরবর্তীতে সফটওয়্যারটি খুলতে, চেঞ্জ করতে, আনইনস্টল করতে, যে কোনো রকম নিয়ন্ত্রণ করতে প্রয়োজন হবে।

Image Link

জ. এরপর ইন্সটলেশন শেষে ‘রিস্টার্ট’ করার কথা বলা হলে পিসি রিস্টার্ট করে নিন।

Image Link

ব্যবহারবিধি :

ক. ডেস্কটপ থেকে সফটওয়্যারটি ওপেন করুন। আপনার ওয়েব ব্রাউজারে নিম্নের চিত্রের মতো তা ওপেন হবে।

Image Link

খ. মাঝের বক্স ‘setup’ এ ক্লিক করুন। পাসওয়ার্ড বক্স আসলে ইন্সটলেশনের সময় যে পাসওয়ার্ড দিয়েছিলেন, তা দিন।

Image Linkগ. সেটাপে High, Default, Moderate, Minimal, Monitor ও Custom আছে। প্রথম চারটি চার লেভেলের নিয়ন্ত্রণ আরোপ করে। আর চতুর্থটি কোনো নিয়ন্ত্রণ আরোপ করে না, তবে সব রকম ওয়েব এ্যাক্সেস মনিটর করে। যা পরে রিপোর্টে দেখা যায়।

Image Link

ঘ. সর্বশেষ অপশনটি দিয়ে ইচ্ছেমতো বিভিন্ন ক্যাটাগরীর নিয়ন্ত্রণ আরোপ ও বন্ধ করা যাবে।

Image Link
ঙ. বাঁ পাশ থেকে ‘Time restriction’ নির্বাচন করে সময়ভিত্তিক ইন্টারনেট এ্যাক্সেস নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। ‘Unrestricted’ সিলেক্ট করলে সবসময় ইন্টারনেট এ্যাক্সেস করা যাবে। তবে পূর্বে সিলেক্টকৃত ক্যাটাগরীর ওয়েবসাইট ব্লক করা থাকবে। ‘Night Guard’ দিয়ে রাতের নির্দিষ্ট সময় সব রকম ইন্টারনেট এ্যাক্সেস ব্লক করা যাবে। ‘Custom’ দিয়ে অন্য যে কোনো সময় সব রকম ইন্টারনেট এ্যাক্সেস ব্লক করা যাবে।

Image Link

চ. বাঁ পাশ থেকে ‘Web site exceptions’ ক্লিক করে আরো কিছু অপশন ঠিক করে নিতে পারেন। কোনো ক্যাটাগরী ব্লক করার পর কোনো নির্দিষ্ট সাইটকে আন-ব্লক করতে ‘Always Allow’ এর ঘরে সাইটটি লিখে ‘Add to list’ এ ক্লিক করুন। আর কোনো নির্দিষ্ট সাইট আলাদা ভাবে ব্লক করার জন্য ‘Always block’ এ তা লিখে ‘Add to list’ এ ক্লিক করুন।

Image Link

ছ. বাঁ পাশ থেকে ‘Blocking Effects’ ক্লিক করে আরো কিছু অপশন নির্বাচন করতে পারেন। ‘Bark when blocked’ ক্লিক করলে কোনো সাইট ব্লক করার সময় আওয়াজ হবে। ফলে আপনি অন্য রুমে থাকলেও আওয়াজ শুনে বুঝতে পারবেন যে আপনার শিশু কোনো ব্লকড সাইট দেখতে চাচ্ছিল।

আবার ‘Show admin options’ এ ক্লিক করলে কোনো সাইট ব্লক করার পর তাতে কিছু ‘এ্যাডমিন অপশন’ দেখানো হবে। যেমন, পাসওয়ার্ড দেয়া সাপেক্ষে সাময়িকভাবে সাইটটি ওপেন করা ইত্যাদি। বাই ডিফল্ট অপশনটা টিক দেয়া থাকে, না চাইলে টিক উঠিয়ে দিতে হবে।

‘Enable Time out’ এ টিক দিলে একটা নির্দিষ্ট সময়ে নির্দিষ্ট সংখ্যক ব্লক সাইট খোলার চেষ্টা করা হলে একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সম্পূর্ণ ভাবে ইন্টারনেট এ্যাক্সেস ব্লক করা থাকবে। যেমন ১০ মিনিটে কেউ ১০টি ব্লক সাইট খোলার চেষ্টা করলো, তাহলে পরবর্তী আধ ঘন্টা সব রকম ইন্টারনেট এ্যাক্সেস ব্লক করা থাকবে। নির্দিষ্ট সময়, ব্লক সাইট সংখ্যা, এ্যাক্সেস বন্ধ রাখার সময় ইত্যাদি নিচে থেকে ঠিক করে নেয়া যাবে।

Image Link

জ. বাঁ পাশ থেকে ‘URL keywords’ এ ক্লিক করে সাইট ব্লক করার জন্য আরো কিছু কী ওয়ার্ড বা শব্দ যোগ করা যাবে। যেমন, আপনি চাচ্ছেন ‘love’ সংক্রান্ত সকল সাইট ব্লক করতে। ‘ক্যাটাগরী ব্লক’ অপশনে আপনি এই ক্যাটাগরী ব্লক করেছেন, কিন্তু এতে কিছু বাংলা সাইট এখনো আনব্লক থেকে যাচ্ছে। তাহলে আপনি এখানে সেসব শব্দ যোগ করে নিতে পারেন। উদাহরণস্বরুপ আপনি ‘joubon’ লিখলে এ নামে যত সাইট থাকবে, বা এই কী ওয়ার্ডযুক্ত যত সাইট থাকবে, সব ব্লক হয়ে যাবে।

Image Link

ঝ. বাঁ পাশ থেকে ‘Advanced’ এ ক্লিক করে আরো কিছু অপশন মডিফাই করতে পারেন। ‘Force safe search’ ও ‘block unsafe search’ ব্যবহার করে আপনি সার্চ ইঞ্জিনগুলোকে সেফ সার্চ রেজাল্ট দেখাতে বাধ্য করতে পারেন। ফলে আপনার শিশু সার্চ ইঞ্জিনে কোনো অনুচিত শব্দ লিখে সার্চ করলেও সার্চ ইঞ্জিন তাকে নিষিদ্ধ রেজাল্ট দেখাবে না। ‘Filter secure traffic’ ব্যবহার করে https সিকিউর কানেকশনের ট্রাফিকেও নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা যাবে। এটা টিক দিয়ে রাখাই ভালো।

Image Link

ঞ. উপর থেকে ‘View internet activity’ ক্লিক করে সকল ইন্টারনেট এ্যাক্টিভিটি দেখা যাবে। আপনার শিশু কোন কোন সাইট ভিজিট করেছে বা করার চেষ্টা করেছে, সব রিপোর্ট এখানে পাবেন।

Image Link

————-

বি:দ্র. : পোষ্টটি প্রথম প্রকাশিত হয়েছে আমার ব্যক্তিগত ব্লগে। পোষ্টটি পড়ে উপকৃত হলে দোয়ার আবেদন রইল। আর হ্যাঁ.. পিস ইন ইসলামে এটা আমার প্রথম পোষ্ট। :) -ইঊসুফ সুলতান

Processing your request, Please wait....
  • Print this article!
  • Digg
  • Sphinn
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Mixx
  • Google Bookmarks
  • LinkaGoGo
  • MSN Reporter
  • Twitter
২৭৩ বার পঠিত
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (ভোট, গড়: ৫.০০)

১০ টি মন্তব্য

  1. খুবই চমৎকার এবং প্রয়োজনীয় পোস্ট। মারাত্নক একটি বিপদ থেকে সাবধান হবার জন্য এটি খুবই জরুরী । আপনাকে ধন্যবাদ ।

    ইঊসুফ সুলতান

    @ম্যালকম এক্স, সতর্ক হওয়ার সময় এখনই। আপনাকেও ধন্যবাদ।

  2. হ্যা। আমাদের আলাদা ভাবে একসেস প্রটেকটিং সফটওয়ার গবেষণা করা প্রয়োজন। ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য।

    ইঊসুফ সুলতান

    @বাংলা মৌলভী, আপনাকেও ধন্যবাদ। দোয়া চাই।

  3. অত্যন্ত চমৎকার একটি পোস্ট। আল্লাহ আপনাকে উত্তম প্রতিদান দান করুন। আমিন।

    ইঊসুফ সুলতান

    @রাশেদ, আমীন। ধন্যবাদ ভাই। ভালো থাকুন।

  4. ইঊসুফ সুলতান

    @ইবনে হাবীব(মাহমুদ), ধন্যবাদ ভাই। ভালো থাকুন।

  5. এই সফটওয়ার কি proxy সাইট গুলিতে একসেস বনদ রাখতে পারে?

  6. আজকাল তো dekha jay main server e onek website block kora but proxy server diye tik e restricted site gula use kora jachche.