লগইন রেজিস্ট্রেশন

শাইখ আলবানী [রাহঃ] কে নিয়ে বিশ্ববরেণ্য উলামার উক্তির প্রমাণ

লিখেছেন: ' Mahir' @ শনিবার, মে ৬, ২০১৭ (১:৩৫ পূর্বাহ্ণ)

প্রথম পর্বে আমি ইমাম আলবানীকে নিয়ে বিভিন্ন আলিমের প্রশংসা উল্লেখ করেছিলাম। দুর্ভাগ্যবশত, আমি ১-২ টা বাদে, তেমন কোন রেফারেন্স উল্লেখ করি নি। তাই আজকে কিছু রেফারেন্স উল্লেখের চেষ্টা করলাম। তবে আমি সংক্ষেপে বলব। কারন আবার যদি বিস্তারিত লিখতে যাই, তবে অনেক সময় যাবে।

Shaikh Shu’ayb al-Aranaout – who is also respected by the
Hanafis – said:

Three people have reached the level of Ijtihaad in this field (of
hadith), 1) Myself, 2) Abdul Qadir Al-Aranaout, and the third is
Shaikh Naasir ud-deen .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

শাইখ আলবানী [রাহঃ] এর নামে অপবাদ

লিখেছেন: ' Mahir' @ শনিবার, মে ৬, ২০১৭ (১:১৩ পূর্বাহ্ণ)

আমার আগের আলোচনাগুলোতে আপনি বুঝেছেন যে, এদেশে যেসব বিদআতি সহিহ হাদিসের চর্চা করে বলে দাবি করে, তারা আসলে আবু গুদ্দাহ সাহেবের মুরিদ।

যারা বলে, শুধু ইমাম আলবানী একমাত্র লোক যে সহিহ বুখারী ও মুসলিমের হাদিস একচেটিয়া যঈফ বলেছেন, তারা মামদূহ সাহেবের মুরিদ।

অথচ, কেবল শায়খ আলবানী নন, প্রথম যুগের বেশ কিছু
মুহাদ্দিছ এ বিষয়ে ছহীহ বুখারীর কতিপয় হাদীছ সম্পর্কে
সমালোচনা করেছেন। তাঁদের মধ্যে সর্বাধিক ইমাম
দারাকুৎনী (৩০৬-৩৮৫ হিঃ) ছহীহ বুখারীর ৭৮টি এবং বুখারী ও
.....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

ইমাম আলবানি সহীহ বুখারী ও মুসলিমের হাদিসকে যঈফ বলেছেন?

লিখেছেন: ' Mahir' @ শনিবার, মে ৬, ২০১৭ (১২:১৭ পূর্বাহ্ণ)

মুরসাল হাদীছ বাতিল

১১. ইমাম ইয়াহিয়া বিন সা’ঈদ [রাহঃ] কখনও ইমাম যুহরি ও ক্বাতাদাহ এর মুরসাল হাদিস গ্রহণ করতেন না। তিনি বলতেনঃ

“এগুলো বাতাসের মত”। {ইবনে আবী হাতিমের আল- মারাসিল; পৃ. ৩}

১২.

ইমাম ইয়াহিয়া বিন মাঈন [রাহঃ] বলেনঃ
.....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

মিথ্যা চেনার মূলনীতি [প্রসঙ্গ বিবর্তনবাদ]

লিখেছেন: ' Mahir' @ শুক্রবার, মে ৫, ২০১৭ (১০:৪৪ অপরাহ্ণ)

1

ভূমিকাঃ
সমস্ত প্রশংসা বিশ্ব জগতের স্রষ্টা, পরিচালক, সুবিজ্ঞ, অসীম কুশলী মহিয়ান আল্লাহর যিনি জ্ঞানের অধার , তিনি অতি সুক্ষ্মদর্শী এবং সব কিছুর খবর রাখেন। তিনিই মানুষকে সে সব বিষয়ে দিক নির্দেশনা দিয়েছেন যাতে তাদের ইহ ও পরকাল উভয় জগতে রয়েছে কল্যাণ ।
আমি স্বাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আল্লাহ ছাড়া সত্য কোন উপাস্য নাই। তিনি অদ্বিতীয়। তাঁর কোন শরীক নাই। আরও স্বাক্ষ্য দিচ্ছি, মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহর বান্দা ও রাসুল। আল্লাহ তাঁর প্রতি, তার পরিবার-পরিজন ও সঙ্গী-সাথীদের প্রতি অবারিত ধারায় .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

একজন লোক যার ক্ষত রয়েছে, সে কিভাবে অযু-গোসল করবে?

লিখেছেন: ' Mahir' @ শুক্রবার, মে ৫, ২০১৭ (২:২১ পূর্বাহ্ণ)

ফাতওয়া ৬৯৭৯৬- একজন লোক যার ক্ষত রয়েছে, সে কিভাবে অযু-গোসল করবে?

প্রশ্নঃ-
ধরুন শরীরের কিছু অংশে ক্ষত আছে, তাহলে কি হবে? ১] প্রথমে অযু করবে, এরপর ক্ষতের অঙ্গে তায়াম্মুম করবে? ২] শুধু তায়াম্মুম করবে?

জবাবঃ-
আলহামদুলিল্লাহ।
যদি কিছু অংশে ক্ষত থাকে, আর তা উন্মুক্ত বা ড্রেসিং-ব্যান্ডেজে আবৃত থাকে-
.....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

তাওবা সম্পর্কে যা জানা জরুরি

লিখেছেন: ' Mahir' @ শুক্রবার, মে ৫, ২০১৭ (২:১৫ পূর্বাহ্ণ)

তাওবা (توبة) হলো মাসদার। অর্থ পাপ থেকে ফিরে আসা।
খারাপ কাজ-গুনাহ, পাপচার, অন্যায় অবিচার ও আল্লাহর নাফরমানি হতে ফিরে এসে, বান্দা নেক কাজ করার মাধ্যমে তার প্রভুর দিকে ফিরে আসাকে তাওবা বলা হয়।
তাওবা কবুলের শর্ত সমূহ ঃ
1.ভুল ক্রুটি আল্লাহর কাছে স্বীকার করতে হবে।
২.গুনার জন্য লজ্জিত ও অনুতপ্ত হওয়া
3.গুনাহ করা বন্ধ করে আল্লাহর কাছে ফিরে আসতে হবে
.....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

আলবানী বিদ্বেষী সাক্বাফ সাহেব আর ইমাম আলবানির শিক্ষাজীবন

লিখেছেন: ' Mahir' @ শুক্রবার, মে ৫, ২০১৭ (১:৫৯ পূর্বাহ্ণ)

‘আরব আলেমদের দৃষ্টিতে শায়েখ নাসীরুদ্দীন আলবানী কেমন ছিলেন?’ নামক প্রবন্ধে মুফতী রফীকুল ইসলাম মাদানী বেশ গৌরবের সাথে হাসসান স্ককাফ সাহেবের নাম উল্লেখ করেছেন। গত পর্ব থেকে আমরা সেই সাক্বাফ নামের ব্যক্তির নাড়ি নক্ষত্র জানার চেষ্টা করছি। আজকেও সেই আলোচনার শেষ অংশ লিখছি।


উস্তাদ সাক্বাফ

আলবানী বিদ্বেষী সাক্বাফ সাহেবের মূর্খতার উপর রচিত বই
. আল কাশশাফ আন দলালাত হাসসান আস সাক্বাফ
. আল ক্বওল আল মুবীন ফী ইসবাত আস-সূরা লী রব্ব আল আলামীন
.....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

পরকাল যে সত্যিই হবে তার যুক্তি

লিখেছেন: ' mamunipc' @ মঙ্গলবার, এপ্রিল ১১, ২০১৭ (৮:৩৯ অপরাহ্ণ)

بَلْ تُؤْثِرُونَ الْحَيَاةَ الدُّنْيَا ﴿١٦﴾ وَالْآخِرَةُ خَيْرٌ وَأَبْقَىٰ
বস্তুতঃ তোমরা পার্থিব জীবনকে অগ্রাধিকার দাও, অথচ পরকালের জীবন উৎকৃষ্ট ও স্থায়ী (সূরা আ‘লা: ১৬-১৭)

১নং যুক্তি-
মানুষ সাধারণত দুটো কারণে মিথ্যা বলে। যথাঃ
১। মানুষ কোন না কোন লোভ বা স্বার্থের বশীভূত হয়ে-অথবা
২। কোন না কোন ভয়ের কারণে।
এ দুটো জিনিস যখন কারও সামনে থাকে না তখন সে সত্য কথাই বলে এটাই মানব প্রবৃত্তি। আমরা দেখি দুনিয়ার নবী রাসূল (সা.) সবাই বলেছেন পরকাল হবে এবং তাঁরা প্রত্যেকেই এমন ছিলেন যে, কোন .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

দুই জনের মধ্যে ঝগড়া হবার পর স্ত্রী তার বাবার বাড়ি চলে গেলে স্বামী যদি মোবাইল এর মাধ্যমে রাগের মাথায় কথা বলার এক পর্যায়ে্ বলে যে,আগে তো এক তালাক দিয়াসি এখন দুই তালাক দিলাম ,তিন তালাক দিলাম,বায়েন তালাক দিলাম।কিন্তু প্রথম এক তালাক সম্পরকে স্ত্রী অবগত না হলে অর্থাৎ শুনে না থাকলে তালাক কার্যকর হবে কি?উল্লেক্ষ স্ত্রী গর্ভবতি ।তালাক প্রদানের ১০-১২ দিন পর সে বলে যে আমি ভুলের মাথায় বলে ফেলেসি তুমি আমার কাছে চলে আস।এখন স্ত্রী তার কাছে জেতে পারবে কি?এবং তালাক কার্যকর হয়েছে কি?

লিখেছেন: ' zabir' @ শনিবার, মার্চ ৪, ২০১৭ (২:২৯ অপরাহ্ণ)

! রিপোর্ট করুন ! .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

আস্তিক-নাস্তিকের যুক্তিতর্ক

লিখেছেন: ' আঁধারের আলো' @ শনিবার, মার্চ ৪, ২০১৭ (২:২৯ অপরাহ্ণ)

بسم الله الرحمن الرحيم
قَالُوا سُبْحَانَكَ لَا عِلْمَ لَنَا إِلَّا مَا عَلَّمْتَنَا إِنَّكَ أَنْتَ الْعَلِيمُ الْحَكِيمُ (32(
অর্থঃ তারা বলল,আপনি মহান পবিত্র,আপনি আমাদের যা শিক্ষা দিয়েছেন তাছাড়া আমাদের তো কোন জ্ঞানই নেই,নিশ্চয়ই আপনি মহাজ্ঞানী,অতিশয় প্রজ্ঞাময়।” (বাকারা:৩১-৩২)

আল্লাহ্‌ই সকল প্রশংসার প্রকৃত হকদার, অসংখ্য দরূদ ও সালাম বর্ষিত হোক তাঁর নবীর উপর বারবার।
আস্তিক ও নাস্তিকের মাঝে যুক্তিতর্কের প্রথম পর্যায়ে আস্তিক সাধারণতঃ এভাবে বলা শুরু করে যে, কোন কিছু শূন্য থেকে নিজে নিজে অস্তিত্ব লাভ করতে পারেনা।কোন ঘটনা বিনা কারণে হয় না। প্রত্যেক .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>