লগইন রেজিস্ট্রেশন

আন নাওয়াবী র চল্লিশ হাদীস (শেষ পর্ব)

লিখেছেন: ' এম এম নুর হোসেন' @ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১১ (১২:১৫ অপরাহ্ণ)

“من نفس عن مسلم كربة”

عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ رَضِيَ اللهُ عَنْهُ عَنْ النَّبِيِّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّم قَالَ: “مَنْ نَفَّسَ عَنْ مُؤْمِنٍ كُرْبَةً مِنْ كُرَبِ الدُّنْيَا نَفَّسَ اللَّهُ عَنْهُ كُرْبَةً مِنْ كُرَبِ يَوْمِ الْقِيَامَةِ، وَمَنْ يَسَّرَ عَلَى مُعْسِرٍ، يَسَّرَ اللَّهُ عَلَيْهِ فِي الدُّنْيَا وَالْآخِرَةِ، وَمَنْ سَتَرَ مُسْلِما سَتَرَهُ اللهُ فِي الدُّنْيَا وَالْآخِرَةِ ، وَاَللَّهُ فِي عَوْنِ الْعَبْدِ مَا كَانَ الْعَبْدُ فِي عَوْنِ أَخِيهِ، وَمَنْ سَلَكَ طَرِيقًا يَلْتَمِسُ فِيهِ عِلْمًا سَهَّلَ اللَّهُ لَهُ بِهِ طَرِيقًا إلَى الْجَنَّةِ، وَمَا اجْتَمَعَ قَوْمٌ فِي بَيْتٍ .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

হাসি আসে সেই সাথে দুঃখওঃ ভূমিকম্প কি মোকাবিলা করা যায়???

লিখেছেন: ' লুৎফর ফরাজী' @ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১১ (১১:৩৮ অপরাহ্ণ)

আজ ১৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সময় সন্ধা ৬টা ৪০ মিনিট এবং ৭টা ১২ মিনিটে পরপর দু’টি শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়ে গেল। দু’টি ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থলই ভারতের সিকিমে। প্রথমটির উৎপত্তিস্থল ২৭.৭৬৪°উঃ, ৮৮.১৮১°পূঃ তে ভূ-পৃষ্ঠের ১০ কিমি গভীরে তীব্রতা রিকটার স্কেলে ৬.৯ এবং দ্বিতীয়টির উৎপত্তিস্থল ২৭.৪৬৪°উঃ, ৮৮.৩৯১°পূঃ তে ভূ-পৃষ্ঠের ২০ কিমি গভীরে, তীব্রতা রিকটার স্কেলে ৬.৮। বাংলাদেশের উত্তরের বাংলাবান্দা সীমান্ত থেকে ভূমিকম্পের কেন্দ্রর দূরত্ব মাত্র ১২৭ কিলোমিটার। প্রথম ভূমিকম্পটি ছিলো তীব্র মাত্রার মূল আঘাত, পরবর্তীটি আফটার শক।

এটি আজকের টপ নিউজ। ভূমিকম্পের সাথে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

হাদীস নিয়ে মিথ্যাচার……….. (৩)

লিখেছেন: ' আবদুস সবুর' @ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১১ (১১:২১ পূর্বাহ্ণ)

আমার এক ভাই “সুরা ফাতিহা বলার পর আমীন বলা” সংক্রান্ত একটি পোষ্ট দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন-

জেহরী সালাতে উচ্চঃস্বরে “আমীন”না বলা নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ও সাহাবাদের ‘আমলের বিপরীত, বরং ইমাম ও মুক্তাদির সকলেরই শ্বরবে “আমীন” বলতে হবে। কেননা রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) জেহরী সালাতে উচ্চঃস্বরে “আমীন” বলতেন এবং ইমাম যখন “আমীন” বলে তখন মুক্তাদীকে “আমীন” বলার নির্দেশ দিতেন যেমন হাদীসে বর্ণিত হযেছেঃ
আবূ হুরাইরাহ (রাযিঃ) হতে বর্ণিত, রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেন, ইমাম যখন “আমীন” বলে তখন তোমরাও .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

সূরা ফাতিহা শেষে আমীন বলা বিষয়ক কিছু কথা….

লিখেছেন: ' আবদুস সবুর' @ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১১ (১১:০৯ পূর্বাহ্ণ)

আবু হুরায়রা (রা) বর্ণনা করেন যে রাসুল (সা) ইরশাদ করেন যে, ইমাম যখন আমীন বলবে তোমরাও তখন আমীন বলবে। কারণ ফেরেশতাগণের আমীন বলার সাথে যার আমীন বলা হবে তার পূর্ববর্তী গুনাহসমূহ মাফ করে দেয়া হবে।
ইমাম তিরমিযী (রহ) বলেন, আবু হুরায়রা (রা) বর্ণিত হাদীসটি হাসান ও সহীহ।

সামুরা (রা) থেকে বর্ণিত আছে যে, তিনি বলেন, আমি রাসুল (সা) থেকে সালাতে দুই স্থানে নীরবতার কথা স্মরণ রেখেছি। ইমরান ইবনে হুসাইন (রা) এ কথা প্রত্যাখ্যান করে বললেন আমরা এক স্থানে নীরবতার কথা জানি। .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

হাদীস নিয়ে মিথ্যাচার……….. (২)

লিখেছেন: ' আবদুস সবুর' @ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১১ (১০:১৪ পূর্বাহ্ণ)

আগের পোষ্ট-

ইতিপূবের লেখায় বলেছিলাম অপেক্ষা করুন সালাতে বুকের উপর হাত বাধার কথা কোন সহীহ হাদীসে নেই বরং এটি সম্পূর্ন অসত্য। এবং তা প্রমানসহ উপস্থাপন করা হয়েছে বুখারী , মুসলিম , তিরমিযী এবং নাসাঈ থেকে। এবার উপস্থাপন করা হবে আবু দাউদ ও ইবন মাজাহ থেকে।আল্লাহ উত্তম সহায়ক।

বুকের উপর হাত বাধার কথা বুখারী মুসলিম তিরমিযী এবং নাসাঈ শরীফে নেই।
আবু দাউদ ও ইবন মাজাহতে আছে যার বর্ননা অত্যন্ত দুর্বল।

আবু দাউদের বর্ননা :
আমাদের নিকট বর্ননা করেছেন
.....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

কোরানের কথা—২(বয়ানুল কোরানের আলোকে)

লিখেছেন: ' Abdus Samad' @ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১১ (৯:৫৫ পূর্বাহ্ণ)

কোরানের একককে আয়াত বলা হয়। রসুল সঃ এর নির্দেশ মোতাবেক আয়াত নির্নীত হয়েছে। কোথাও মাত্র একটি শব্দই একটি আয়াত যেমন; ‘অয়াল আসরে’, আবার কোথাও কয়েকি হরফই একটি আয়াত, যেমন; ‘আলীফ লাম মীম’, আবার কোথাও কয়েকটি বাক্য মিলেই একটি আয়াত হয়েছে, যেমন; ‘আয়াতুল কূরসী’। অতএব, সাধারণতঃ আমরা বাক্য বা ‘ভার্স’ বলতে যা বুঝি তা কোরানের ক্ষেত্রে অচল। তাই কোরানের আয়াতকে আয়াত বলাই সমিচীন; তেমনই সুরাকে চ্যাপটার না বলে সুরা বলা, কারণ অধ্যায় বা চ্যাপটারে, কোন একটি বিষয়ের বর্ণনা শেষ .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

সুরা ফাতেহার অনুবাদ ও সংক্ষিপ্ত তাফসীর, ডাঃ ইসরার আহমদ সাহেবের, উর্দু; ‘বয়ানুল কোরআন’ এর আলোকে। আব্দুস সামাদ।

লিখেছেন: ' Abdus Samad' @ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১১ (৯:৫৪ পূর্বাহ্ণ)

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহীম, আরম্ভ করছি আল্লার নামে, যিনি পরম করুনাময় ও অতিশয় দয়ালু। আয়াতে বিসমিল্লায় ১৯ টি অক্ষর আছে। কোরানের প্রতিটি সুরার প্রথমে (সুরা তওবা বাদে) আয়াতে বিসমিল্লাহ আছে। পবিত্র কোরানে ১১৪ টি সুরা আছে। ১১৩টি সুরার সূচনায় আয়াতে বিসমিল্লাহ আছে। ১৯ সংখ্যাটি কোরানের অলৌকিকত্বের একটি বিশেষ ভুমিকায় অবস্থান করে। কোরানের সূচনাতেই ১৯ সংখ্যা বিশিষ্ট আয়াতটি স্থাপিত হল। এই প্রসঙ্গে স্মরণযোগ্য যে, সুরা নমলের ৩০ আয়াতে আল্লাহ আয়াতে বিসমিল্লাহ স্থাপন করে তার সংখ্যা ১১৩+১=১১৪ পুরা করলেন, যা ১৯ দ্বারা বিভাজ্য। .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

তারা সামাজিক মুসলমান!!!

লিখেছেন: ' তরবারি' @ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১১ (৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ)

ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে ইসলাম ধর্ম ৭৩ দলে বিভক্ত। আমি অন্য দৃষ্টিকোন থেকে একটু ইসলাম ধর্ম পালনকারীদের বিশ্লেষণ করবো। ঈদের নামায তাড়াতাড়ি আদায় করার নির্দেশ থাকলেও অনেক ঈদগাহে ১০-১১টায় ঈদের নামায অনুষ্ঠিত হয়। কারণটা জানতে চান? এলাকার ধনাঢ্য জনের জন্য এ ব্যবস্থা(!) উনারা খুব ভোরে ঘুম থেকে উঠতে পারেন না। ঈদগাহ কর্তৃপক্ষও তাদের সম্মান করে থাকে কারণ বড় অঙ্কের অনুদানের আশায়। তবে যাই হোক দেরী কেনো? ঈদ উপলক্ষে দামী মদ এসেছে রাতে, বন্ধুদের নিয়ে চাঁদ রাতে দারুণ ফূর্তি হয়েছে। তাই দেরীতে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

পুরুষের কয়েকটি স্বাস্থ্য সমস্যা

লিখেছেন: ' sayedalihasan' @ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১১ (৯:৫২ পূর্বাহ্ণ)

সাধারণত যেসব রোগ পুরুষের বেশি হয় এবং যেসব রোগে পুরুষের মৃত্যুহার বেশি, সেগুলো পুরুষদের স্বাস্থ্য সমস্যা হিসেবে পরিচিত। পুরুষের শত্রু হিসেবে কয়েকটি রোগ-ব্যাধিকে চিহ্নিত করা যেতে পারে_

হৃদরোগ
পুরুষের প্রধান শত্রু। প্রতিরোধ করতে হলে নিচের বিষয়গুলোর প্রতি লক্ষ্য রাখতে হবে।
* প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ_সব ধরনের ধূমপান পরিত্যাগ করতে হবে।
* স্বাস্থ্যকর খাদ্য গ্রহণ করতে হবে। শাকসবজি, ফলমূল, আঁকাড়া শস্যদানা, অতিরিক্ত আঁশযুক্ত খাদ্য ইত্যাদি বেশি খেতে হবে। কিন্তু সম্পৃক্ত চর্বি এবং লবণযুক্ত খাবার পরিহার করতে হবে।
* উচ্চ রক্তচাপ কিংবা ডায়াবেটিস হলে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

একটি ছোট্ট গল্প ও আমাদের “ফুলিশ”

লিখেছেন: ' রাসেল আহমেদ' @ শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১১ (১২:১০ অপরাহ্ণ)

একজন ভদ্র লোকের সাথে হেটে যাচ্ছি একটি নির্দিষ্ট ঘটনার পর (ঘটনাটি পরে বলছি)। ভদ্রলোক আমাকে একটি গল্প শুনানেল, আজ তা আপনাদের সাথে শেয়ার করছি।

কোন এক দেশে রাজা একদিন স্বপ্নে দেখলেন, তার দেশে বৃষ্টি হচ্ছে । যে লোকই এই বৃষ্টি মিশ্রিত পানি পান করছে সেই পাগল হয়ে যাচ্ছে। যারা কোন এক সুফি সাধক কে প্রশ্ন করলেন এটা কেন হচ্ছে? সুফি সাধক জবাব দিলেন এটার নাম “পাগলা পানির বৃষ্টি” যে ব্যক্তিই এই পানি পান করবে সেই পাগল হয়ে যাবে।

পরদিন রাজা ঘুম থেকে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>