লগইন রেজিস্ট্রেশন

প্রকৃতির বৈচিত্র্য: ডারউইনবাদীদের নাইটমেয়ার-১০

লিখেছেন: ' এস.এম. রায়হান' @ মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১১ (২:১৭ পূর্বাহ্ণ)

বিবর্তন তত্ত্ব অনুযায়ী পুরো জীবজগতের উৎস যেহেতু একটি এককোষী জীব সেহেতু লক্ষ লক্ষ প্রকারের ফল-মূল-ফুলের গাছের আলাদা আলাদা উৎস নাই। একটি জীব থেকে যদি উদ্ভিদজগত ও প্রাণীজগত বিবর্তিত হয়ে থাকে তাহলে বিবর্তনের কোন এক পর্যায়ে উদ্ভিদকে আলাদা হতেই হবে। শুধু তা-ই নয়, সেই উদ্ভিদ থেকে আবার লক্ষ লক্ষ প্রকারের উদ্ভিদ বিবর্তিত হতে হবে; যাদের মধ্যে হাজার হাজার ধরণের শুধু লতা-পাতা-ওয়ালা উদ্ভিদ, হাজার হাজার ধরণের শুধু ফুল-ওয়ালা উদ্ভিদ, এবং হাজার হাজার ধরণের ফলন্ত উদ্ভিদ আছে। আর এগুলোর সবই হতে হবে এলোমেলো পরিবর্তন ও প্রাকৃতিক নির্বাচনের মাধ্যমে! এবার বাস্তবিক দৃষ্টিকোণ থেকে যুক্তিতে আসা যাক।

প্রথমত, বিবর্তন তত্ত্ব অনুযায়ী প্রথম উদ্ভিদ তালগাছ জাতীয় কিছু ছিল না নিশ্চয়। ধরা যাক শৈবাল জাতীয় কিছু একটা ছিল। তো সেই শৈবাল জাতীয় উদ্ভিদ থেকে কীভাবে বিশাল বিশাল ফল-মূল ও ফুলের গাছ বিবর্তিত হবে, যেখানে শৈবাল জাতীয় উদ্ভিদ এখনো রয়েই গেছে? ডারউইনবাদীরা প্রমাণ দেখাতে না পেরে নিশ্চয় বলবেন যে শৈবাল জাতীয় উদ্ভিদ থেকে এক লাফে বিশাল বিশাল ফল-মূল ও ফুলের গাছ বিবর্তিত হয়নি – ধীরে ধীরে হয়েছে! প্রমাণ দেখাতে না পারলেই সেটি ‘ধীরে ধীরে’ হয়! কিন্তু শৈবাল জাতীয় উদ্ভিদ থেকে ধীরে ধীরে বিশাল বিশাল ফল-মূল ও ফুলের গাছ যে বিবর্তিত হওয়া সম্ভব নয় – এই সত্যকে কখনোই স্বীকার করা হবে না। কেননা বিবর্তনবাদকে একটি ধর্ম বা দর্শনের মতো বানিয়ে ফেলা হয়েছে।

দ্বিতীয়ত, এবার ফল-ফুল বিহীন যে কোন একটি উদ্ভিদ চিন্তা করুন। এরকম একটি উদ্ভিদকে মিলিয়ন মিলিয়ন বছর ধরে রেখে দিলেও কি সেখানে থেকে একদিন ফল/ফুল ধরা শুরু করবে? ফল/ফুল ধরার জন্য নতুন তথ্য কোথা থেকে আসবে? ফল/ফুল কি প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে ধাপে ধাপে ধরবে নাকি এক লাফে ধরবে? অর্থাৎ প্রাথমিক অবস্থায় একটি ফল/ফুল কি পূর্ণাঙ্গ অবস্থায় থাকবে না? প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে পূর্ণাঙ্গ হবে? তা কী করে সম্ভব! সেই ফল/ফুলের গাছ থেকে আবার শত শত ফল/ফুলের গাছ-ই বা কেন ও কীভাবে ধাপে ধাপে বিবর্তিত হবে?

তৃতীয়ত, প্রকৃতিতে বিভিন্ন ফলের মধ্যে বিভিন্ন সংখ্যক বিচি দেখা যায়। একটি থেকে শুরু করে অসংখ্য বিচি-ওয়ালা ফল আছে। প্রত্যেক ফলের আকার-আকৃতি ও স্বাদ আলাদা। এই অবস্থায় এক ফলের গাছ থেকে অন্যটি কীভাবে ধাপে ধাপে বিবর্তিত হবে?

চতুর্থত, কোন্ গাছ থেকে ধাপে ধাপে তালগাছ বিবর্তিত হয়েছে? তালগাছ থেকে কীভাবে ধাপে ধাপে ভিন্ন একটি গাছ বিবর্তিত হওয়া সম্ভব? কোন্ গাছ থেকে ধাপে ধাপে আম গাছ বিবর্তিত হয়েছে? কোন্ গাছ থেকে ধাপে ধাপে কাঁঠাল গাছ বিবর্তিত হয়েছে? কোন্ গাছ থেকে ধাপে ধাপে ডালিম গাছ বিবর্তিত হয়েছে? এই গাছগুলো থেকে ধাপে ধাপে নতুন ফল-মূলের গাছ আর বিবর্তিত হচ্ছে না কেন?

পাঠক! উদ্ভিদের প্রজনন প্রক্রিয়া কিন্তু রয়েই গেল। সকল উদ্ভিদের প্রজনন প্রক্রিয়া কিন্তু এক রকম না। ফলে উপরোক্ত বিষয়গুলোর সাথে প্রজনন প্রক্রিয়া যোগ করলে ডারউইনবাদীদের অবস্থা আরো করুণ হবে।

ফল-ফুল-বিহীন উদ্ভিদ

শুধু ফুলের গাছ

ডারউইনবাদীদের তালগাছ

আম গাছ

অ্যাপেল গাছ

আঙ্গুর গাছ

পেপে গাছ

কাঁঠাল গাছ

এবার একটি নির্দিষ্ট উদাহরণ নিয়ে আলোচনা করা যাক, যাতে করে সবাই ব্যাপারটা বুঝতে পারেন। ডালিম ও ডালিম গাছের কথাই চিন্তা করুন। একটি ডালিম গাছে অনেক ডালিম ধরে। প্রত্যেক ডালিমের মধ্যে শত শত বিচি থাকে। প্রত্যেক বিচিকে ঘিরে সুমিষ্ট ও ভাইটামিনযুক্ত রস থাকে, সেই রস আবার পাতলা পর্দা দ্বারা আবৃত থাকে। ডালিমের ভেতরে একাধিক প্রকোষ্ঠ দ্বারা বিচিগুলো আলাদা করা থাকে। সবকিছু আবার শক্ত খোসা বা পর্দা দ্বারা আবৃত থাকে।

ডালিম গাছ

প্রাকৃতিক নিয়ম অনুযায়ী ও বাস্তব অভিজ্ঞতার আলোকে আমরা জানি যে, ডালিম গাছে ডালিম ধরে এবং ডালিমের বিচি থেকে আবার ডালিম গাছ হয়। অন্যভাবে বললে বলা যায়, ডালিমের বিচি থেকে ডালিম গাছ হয় এবং সেই গাছে আবার ডালিম ধরে। ফলে ডালিম আর ডালিম গাছকে একটি চক্র বলা যেতে পারে। এই অবস্থায় অন্য কোন গাছ থেকে ধাপে ধাপে ডালিম গাছ বিবর্তিত হওয়ার সুযোগ কোথায়, পাঠক! অন্য কোন গাছ থেকে যদি ডালিম গাছ ধাপে ধাপে বিবর্তিত হয় তাহলে ডালিমের অবস্থা কেমন হবে? গাছ-ই বা কেমন হবে? ভেবে দেখুন। একবারে পূর্ণাঙ্গ ডালিম গাছ কিংবা ডালিমের বিচি ছাড়া অন্য কোন ভাবেই একটি ডালিম গাছ ও ডালিমকে চিন্তা করা যাবে না। ডালিম গাছের জায়গায় অন্য যে কোন ফলের গাছ যদি বিবেচনা করা হয় তাহলেও একই ফলাফল আসবে। অর্থাৎ বাস্তবিক দৃষ্টিকোণ থেকে প্রত্যেকটি ফলের গাছের আলাদা উৎস থাকতে হবে। আর তা যদি থাকতেই হয় তাহলে ডারউইনের বিবর্তন তত্ত্বের সাথে সরাসরি সাংঘর্ষিক হয়ে যায়।

Processing your request, Please wait....
  • Print this article!
  • Digg
  • Sphinn
  • del.icio.us
  • Facebook
  • Mixx
  • Google Bookmarks
  • LinkaGoGo
  • MSN Reporter
  • Twitter
১,২৯০ বার পঠিত
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (ভোট, গড়: ৫.০০)

৩ টি মন্তব্য

  1. ডারউইনবাদীদের কল্পকাহিনী এই দুনিয়ার যে কোন পৌরাণিক কল্পকাহিনীকে নিঃসন্দেহে হার মানাবে। (Y) (Y) (Y)
    ধন্যবাদ আপনাকে। মহান আল্লাহ বাতিলের বিরূদ্ধে আপনাকে বেশি বেশি লেখার তাওফিক দান করূন।

  2. সকল উদ্ভিদের প্রজনন প্রক্রিয়া কিন্তু এক রকম না। ফলে উপরোক্ত বিষয়গুলোর সাথে প্রজনন প্রক্রিয়া যোগ করলে ডারউইনবাদীদের অসহায় অবস্থা বুঝতেই পারছেন! বানরের বাচ্চারা কি এ গুলি বুঝেনা?

  3. [...] অন্যান্য পর্ব: [পর্ব-২|পর্ব-৩|পর্ব-৪|পর্ব-৫|পর্ব-৬|পর্ব-৭|পর্ব-৮|পর্ব-৯|পর্ব-১০] [...]