লগইন রেজিস্ট্রেশন

সেপ্টেম্বর, ২০১১ -এর আর্কাইভ

 

কোরআন ও হাদীসের আলোকে মুনাফীকের চরিত্র। পর্ব ০২।

লিখেছেন: ' shahedups' @ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১১ (২:৩৩ অপরাহ্ণ)

৭. মুনাফিকদের মূর্খতা ও মুমিনদের মূর্খ বলে আখ্যায়িত করা:
মুনাফিকরা নিজেরা মূর্খ এ জিনিষটি তাদের চোখে ধরা পড়তো না। কিন্তু তারা মুমিনদের মূর্খ বলে আখ্যায়িত করত। এ কারণেই তাদের যখন মুমিনদের ন্যায় ঈমান আনার জন্য বলা হত, তখন তারা বলত, মুমিনরা-তো বুঝে না, তারা মূর্খ, তাই তারা ঈমান এনেছে। আমরাতো মূর্খ নই, আমরা শিক্ষিত আমরা কেন ঈমান আনব? আল্লাহ তা‘আলা তাদের বিষয়ে বলেন,
“আর যখন তাদেরকে বলা হয়, ‘তোমরা ঈমান আন যেমন লোকেরা ঈমান এনেছে’, তারা বলে, ‘আমরা কি .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

শাওয়ালের ছয় রোজার ফজিলত

লিখেছেন: ' এম এম নুর হোসেন' @ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১১ (১০:১২ পূর্বাহ্ণ)

আবু আইয়ুব আনসারি রাদিআল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন, যে ব্যক্তি রমজানের রোজা রাখবে অতপর শাওয়ালে ছয়টি রোজা পালন করবে সে যেন যুগভর রোজা রাখল৷ (মুসলিম ১১৬৪)
সাওবান রাদিআল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন, রমজানের রোজা দশ মাসের রোজার সমতুল্য আর (শাওয়ালের) ছয় রোজা দু’মাসের রোজার সমান৷ সুতরাং এ হলো এক বছরের রোজা৷
অপর রেওয়ায়েতে আছে, যে ব্যক্তি রমজানের রোজা শেষ করে ছয় দিন রোজা রাখবে সেটা তার জন্য পুরো .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

কোরআন ও হাদীসের আলোকে মুনাফীকের চরিত্র। পর্ব ০১।

লিখেছেন: ' shahedups' @ সোমবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১১ (৭:৩৯ অপরাহ্ণ)

কুরআন ও হাদিসে মুনাফিকদের চরিত্র :
কুরআনে করীম ও রাসূল [সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম] এর পবিত্র হাদিসের অসংখ্য জায়গায় মুনাফিকদের আলোচনা এসেছে। তাতে তাদের চরিত্র ও কর্মতৎপরতা আলোচনা করা হয়েছে। আর মুমিনদেরকে তাদের থেকে সতর্ক করা হয়েছে যাতে তাদের চরিত্র মুমিনরা অবলম্বন না করে। এমনকি আল্লাহ তা‘আলা তাদের নামে একটি সুরাও নাযিল করেন।

১. মুনাফিকদের অন্তর রুগ্ন ও ব্যাধিগ্রস্ত:
মুনাফিকদের অন্তর রুগ্ন ও ব্যাধিগ্রস্ত থাকে। আল্লাহ তা‘আলা কুরআনে করীমে এরশাদ করেন, “তাদের অন্তরসমূহে রয়েছে ব্যাধি। অতঃপর আল্লাহ তাদের ব্যাধি বাড়িয়ে দিয়েছেন। .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

ফিরোজ দাইলামী রাযি. ও ভণ্ডনবীর ছিন্ন মস্তক!

লিখেছেন: ' এম এম নুর হোসেন' @ সোমবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১১ (১২:৫৩ অপরাহ্ণ)

বিচিত্র এই পৃথিবী! বিচিত্র এই পৃথিবীর মানুষ!! সর্বযুগে, সর্বকালেই পৃথিবীতে ছিল দু’ধরনের মানুষ, এখনো আছে। থাকবে কিয়ামত পর্যন্ত। একদল মানুষ যা পায় তা নিয়েই খুশি। খোদায়ী ফয়সালায় তারা সন্তুষ্ট। তাদের অন্তরে বেশি পাওয়ার লোভ নেই। নেই পদ কিংবা পদবীর কোনো লালসাও।
আরেক দল মানুষ আছে যাদের চাহিদার কোনো শেষ নেই। চাওয়ার কোনো সমাপ্তি নেই। আশারও কোনো অন্ত নেই। তারা যত পায় তত চায়! একটু পেলে আরেকটু পেতে চায়। একটু দিলে আরেকটু নিতে চায়। ক্বানাআত বা অল্পেতুষ্টির গুণ অর্জন করেনি তারা। .....

১২ টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

বিশ টাকার বিনিময়ে বিশ কোটি টাকার সম্পদ বিক্রি

লিখেছেন: ' habib008' @ শনিবার, সেপ্টেম্বর ৩, ২০১১ (৮:৫৮ পূর্বাহ্ণ)

আমার পরিচিত এক জন প্রবাসী। তিনি এক দিন তার কফিলের বাড়িতে লাগানোর জন্য একটা পানির ফিল্টার কিনতে দোকানে যাচ্ছেন। আমাকে সাথে যেতে বললেন তো গেলাম। ফিল্টার কেনার পর যা মূল্য এসেছে তার রিসিড লিখার সময় দোকানদার তার কাছে জিজ্ঞেস করলেন ‘ বাড়াইয়া লিখতে হবে’?
তিনি বললেন “হ্যাঁ বিশ রিয়াল বেশি লিখে দেন।”
আমি দোকানদারকে বললাম এক মিনিট অপেক্ষা করুন আমরা একটু কথা বলি তার পরে লিখবেন। তিনি বললেন ঠিক আছে। তার পর আমি সেই পরিচিত জনকে এক পাশে নিয়ে .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

ফজরের নামাজের সময় পিছালো কেন?

লিখেছেন: ' Mujibur Rahman' @ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১, ২০১১ (৫:৪৫ অপরাহ্ণ)

গোটা রমজান মাসে সব মসজিদে ফজরের আজান ( যা নামাজের সময় নির্দেশ ও আহবান করে) স্থান ভেদে কয়েক মিনিট কমবেশীতে একই সংগে প্রচার করা হয়েছিল কিন্ত্তু রমজান শেষে কিছু মসজিদে আগের সময়ে আজান দেওয়া হলেও অনেক মসজিদে এই সময় ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর নির্ধারণ করা হয়েছে। এর যৌক্তিকথা কোথায়? কারও জানা থাকলে দয়া করে বলবেন।

! রিপোর্ট করুন ! .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>

বে-নামাযীদের বলছি….

লিখেছেন: ' faridsworld07' @ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১, ২০১১ (৩:৪৪ অপরাহ্ণ)

আল্লাহ তা’আলা প্রত্যেক মুসলমানের জন্য নামাযকে ফরয করেছেন । কুরানের মোট ৮২ জায়গায় নামায সম্পর্কে বলা হয়েছে । এই নামাযের উপরই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে । হাদিসে বলা হয়েছে কেউ নামাযে উতরে গেলে সব বিষয়েই উতরে যাবে ।আর নামাযে ফেল করলে সব বিষয়েই ফেল । তারপরেও অনেক মুসলমানকে দেখা যায় নামায না পড়তে । তারা হয়ত ব্যস্ততা বা অলসতার কারণে নামায পড়েননা। কিন্তু এর পরিণতি সম্পর্কে তারা একটুও অবগত নন ।
তার আগে বলি,(এটা হজম করতে হয়ত অসুবিধা হবে) .....

টি মন্তব্য  |  বিস্তারিত >>